পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/২৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


)ను নিত্যানন্দের নবদ্বীপে প্রবেশ । বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । শ্রীচৈতন্তের বিদায়-গ্রহণ ও গৃহে সংবাদ-প্রেরণ। ঐনিত্যানন্দ পহু সঙ্গে চলি যায়। " হাসিয়া ঠাকুর তারে দিলেন বিদায় ॥ নবদ্বীপ যাহ তুমি শুনহ বচন। নদীয়া-নগরে মোর যত বন্ধু-জন ॥ সবারে কহিবে মোর সবিনয় বাণী । অদ্বৈত আচাৰ্য্য-ঘরে উত্তরিব আমি ॥ সভারে লইয়া তুমি যাইহ তথাকারে । একত্র হইব সভে আচার্য্যের ঘরে ॥ ইহা বলি মহাপ্ৰভু চলিলা সত্বরে। নিত্যানন্দ-প্ৰভু গেলা নদীয়া-নগরে ৷ নদীয়া-নগরে লোক জীয়ন্তেই মরা। ছেদন করিতে রক্ত মাংস নাহি তারা ॥ উদরে নাহিক অন্ন টলমল তনু । সব অন্ধকারময় গোরাচাদ বিনু ॥ আচম্বিতে নিত্যানন্দ নদীয়া-নগরে । গাএ বোলাইল সভে ধাইল সত্বরে ॥ চলিতে না পারে কেহ টলমল করে । দেখিতে না পায় পথ নয়নের নীরে ॥ সকল বৈষ্ণব কাদে পড়িয়া চরণে । পুছিতে না পারে কিছু কাতর বদনে ॥ শচী অতি উনমতা ধাএ উৰ্দ্ধমুখে। এ ভূমি আকাশ তার যুড়িয়াছে শোকে ॥ আৰ্ত্তনাদে ডাকে শচী আরে অবধূত। কোথা খুঁয়ে আলি আমার নিমাঞি সোণার স্থত । ইহা বলি ডাকে শচী বুকে কর হানে। টলমল করে নাহি চাহে পথ-পানে ॥ -