পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/২৮৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বৈষ্ণব-চরিত্যখ্যান—কৃষ্ণদাসের ভক্তমাল—১৭শ শতাব্দী। Rరి(t স্ত্রী কহে তবে যদি করহ বিচার । ব্রাহ্মণ পণ্ডিত স্থানে না পাইবে সার ॥ গোসাঞি মহান্ত আর শাস্ত্রজ্ঞ বৈষ্ণব । লইয়া বিচার পাবে সিদ্ধান্ত যে সব ॥ তবেত ভাইয় গোসাঞি মহন্ত লইয়া । বৈষ্ণব-ধৰ্ম্মে দীক্ষণ । বিচার করিল বহু আগ্রহ করিয়া ॥ তাহাতে সিদ্ধান্ত স্থির প্রতীত হইল। কৃষ্ণ ভজিবারে মনে সার নিরূপিল । পরিবার হৈল শ্রমান আচাৰ্য্য প্রভুর। আশ্রয় করিল মালিহাটার ঠাকুর । আপনার পরিজন যে কেহ আছিল। সকল সহিত হরি আশ্রয় করিল ৷ শুদ্ধ-তত্ত্ব সদাচার পরম পবিত্র । আশ্রয় মাত্ৰেতে হৈল মহাযোগ্য পাত্র ॥ যাত্রা-মহোৎসব সদা বৈষ্ণব-সেবন । মহাভাগবত হৈল অনন্ত-শরণ ॥ গরিপার (১) বাট সেবা প্রকাশ করিল। শ্রীনন্দদুলাল নাম তাহার হইল ॥ সেবার শৃঙ্খলা আর বৈষ্ণব-সেবন। শ্ৰীনন্দদুলাল লামপ্রেমানন্দে করে সেই আশ্চৰ্য্য কথন । গ্রহণ । অস্থাপি বিরাজমান ঠাকুর তথায়। সুঠাম দেখিয়া চিত্তে আনন্দ জন্মায়। তবে শুন ভায়্যা মহাশয়ের চরিত্র। আশ্চৰ্য্য কথন এই পরম পবিত্র ॥ চমৎকার দেখি হরি-ভক্তির মহিমা । ভায়্যারি জন্মিল তবে বৈরাগ্যের সীমা ॥ ঠাকুর-সেবার আর স্ত্রীর কারণ। গ্রাম ভূমি রাখি আর কৈল বিতরণ ॥ দৌলত লুটায়্যা দিল ব্রাহ্মণ বৈষ্ণবে। বৃন্দাবন গেল কৃষ্ণ-অনুরাগ-ভাবে ॥ যমুনার তীরে বাস কৃষ্ণ-নাম করে। ভক্তি ও বৈরাগ্য। অযাচক-বৃত্তি মাত্র রহে অনাহারে । (১) একটা স্থানের নাম । -