পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/২৯৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১২৪৮ গ্রন্থ-চুৰি। নাগরিকগণেন্থ জালোচঙ্গী। - বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । সে রাত্রিতে সকলেই করিতে শরন। হইলেন নিদ্রাগত নাহিক চেতন ॥ চণ্ডীপদে প্রণমি কহয়ে বারে বারে । কাৰ্য্য-সিদ্ধি করি রক্ষা করহ সবারে ॥ ঐছে কত কহি আচাৰ্য্যাদি সন্নিধানে। আগে পাঠাইল শ্রেষ্ঠ চেীর একজনে ॥ তেঁহো আসি দেখে সবে নিদ্রাগত হৈল । জানি সুসময় গিয়া দম্য জানাইলা ॥ দস্থ্যগণ শীঘ্ৰ আসি ভয়ঙ্কর বেশে । স্বচ্ছন্দে লইয়া গাড়ী বনেতে প্রবেশে ॥ । রাত্রিশেষে বনবিষ্ণুপুরে প্রবেশিয়া। দিলেন রাজারে সব বৃত্তান্ত কহিয়া ॥ বনবিষ্ণুপুরের যতেক শিষ্টগণ । শুনিলেন রাজা হরিলেন বহু ধন ॥ নির্জনে বসিয়া কেহ কহে কারু প্রতি । কৈল অতি মন্দ কাৰ্য্য রাজা দুষ্টমতি ৷ বৃন্দাবন হৈতে মহাজন ধন লৈয়া । ক্ষেত্রে চলে জগন্নাথ-দর্শন লাগিয়া ॥ তারে দুঃখ দিল এ পাপিষ্ঠ দুরাচার। বুঝিল ইহার কভু নহিব উদ্ধার ॥ কেহ কারু কর্ণে কহে ক্ৰন্দন করিয়া । বনবিষ্ণুপুর যাবে উচ্ছন্ন হইয়া ॥ ঐছে দুষ্ট রাজা নাই ভারত-ভূমিতে । কেহ ন পারয়ে এ পাপীরে দণ্ড দিতে । কেহ কহে এ দুষ্ট রাজার এই রীতি। করিবে নরক-ভোগ কভু নাই গতি ॥ কেহ কহে এ দুষ্টের সকল অনীত । কহ দেখি ইহার কিরূপে হবে হিত ॥ গ্রামবাসী শিষ্ট লোক চিন্তে মনে মনে। কৃষ্ণ কি করিবে রক্ষা এই মহাজনে ॥ নিশ্চিন্তে আছয়ে সবে শঙ্কা না জানয় । সাবধান করিকেও নারি রাজ-ভর । ,