পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৩১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১২৬২ খেতুরীর পত্র। বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । শ্ৰীগরহাম্বীরে পত্রী পৃথক লিখিল । তাহে তার পরম সৌভাগ্য জানাইল । পত্রী-দ্বয় লৈয়া দূত বিষ্ণুপুরে গেলা । পত্রী দিয়া রাজারে সকল নিবেদিলা ॥ রাজা নিজ-দূতের সৌভাগ্য প্রশংসিয়া । শ্ৰীআচাৰ্য্য-আগে চলে উল্লসিত হৈয়া ॥ এথা শ্রীনিবাসাচার্য্য লৈয়া শিষ্যগণ । গোস্বামীর গ্রন্থ করায়েন অধ্যয়ন ॥ সভা-মধ্যে বসিয়া আছেন স্থৰ্য্য-প্রায়। দেখিতে সে শোভ করে নেত্র না জুড়ায় । শ্ৰীবীরহাম্বীর শ্ৰীআচাৰ্য্য আগে গিয়া । করিল প্রণাম যত্নে ভূমে লোটাইয়া ॥ আচার্যো কহয়ে দাড়াইয়া যোড়-হাতে । খেতরি হইতে পত্রী আইল এই প্রাতে ॥ মে পাপীরে অনুগ্রহ করি অতিশয়। লিখিলেন এ পত্রী ঠাকুর মহাশয় ॥ প্রভুকে এ পত্রী লিখিলেন এত কৈয়া । দিলেন পত্রিকা অতি উল্লসিত হইয়া ॥ আচাৰ্য্য পড়েন পত্রী শুনি সৰ্ব্বজনে। নিবারিতে নারে অশ্র সবার নয়নে ॥ পত্রী-পাঠ হইলে রাজা পুনঃ নিবেদিল । পত্র-বহির্ভূত দূতমুখে যে শুনিল । যৈছে শ্ৰীসন্তোষ রাজা উৎসাহে আপনে । করিল মঙ্গল-ক্রিয়া বিধির বিধানে ॥ ব্রাহ্মণগণেরে দান কৈল যে প্রকার । সে সব শুনিতে মহা-উল্লাস সবার ॥ রাজারে আইল মহাশয়ের লিখন । ইথে ভূপ-সৌভাগ্য প্রশংসে সৰ্ব্বজন ॥ কতক্ষণ রহি রাজা আচাৰ্য্য-সভায় । অনুমতি লৈয়া গৃহে গেলেন ত্বরায় ॥ শ্ৰীমহাশয়ের পত্রী পড়িয়া নিভৃতে। ছইল বিহবল রাজা নারে স্থির তৈতে |