পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৩১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । মুঞি হেন লৌহ-পিণ্ড মোরে দ্রবাইল । কৃপা করি সে লীলা-সমুদ্রে ডুবাইল । দয়ার অবধি মোর প্রভু শ্ৰীনিবাস। করিব সফল যে জন্মিবে অভিলাষ । চিন্তা না করিহ পাবে তার প্রিয় গণে । ও পদ করহ সার জীবনে মরণে ॥ ঐছে কত কহে রাজা প্রশংসে রাণীরে। বিস্তারিতে নারি গ্রন্থ-বাহুল্যের ডরে ॥ হরিচরণ দাসের অদ্বৈত-মঙ্গল। রসিকচন্দ্র বস্তু মহাশয়-লিখিত প্রবন্ধ হইতে সংগৃহীত। সাহিত্য-পরিষৎ পত্রিকা, সন ১৩০৩, ৩২৬৭ পৃষ্ঠা। অনুমান ১৬৫০ খৃষ্টাব্দে এই গ্রন্থ রচিত হয়। “বঙ্গভাষা ও সাহিত্যে”র ৩৮১ পৃষ্ঠা দ্রষ্টব্য। জম্বুদ্বীপ মধ্যে হয় নবদ্বীপ গ্রাম । শ্ৰীবৃন্দাবন-প্রায় গুণবন্ত ধাম ॥ তথা যমুনা-বেষ্টিত অৰ্দ্ধচন্দ্র। তথা রহে গঙ্গা যে সেহি প্রায় ছন্দ ॥ গঙ্গা-যমুনা দোহে আছে এক স্থায়ী। কতু এক হইয়া রহে কতু যায় তথাই ॥ বড় বড় ব্রাহ্মণ দেশে দেশে আসি । নবদ্বীপ বাস করে হইয়া তপস্বী। মহাদেব ক্ষেত্রপাল লিঙ্গরূপে রহে । ব্রাহ্মণ ক্ষত্ৰিয় বৈশু সবে পূজে তাহে ॥ শান্তিপুর গ্রাম বন্দিএ যতনে। তাহাতে প্রভুর লীলা হয় রাত্ৰ-দিনে ॥ চারি ক্রোশ শান্তিপুর গঙ্গা দুই পাশে। । বন্দনের শ্রেণী সব গঙ্গাতে ভালবাসে ॥ নারিকেল দুই পাশে জঙ্গল সারি সারি। অনুত্তমরূক্ষ মধ্যে তাহাতে আচারি ॥