পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৩১৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বৈষ্ণব-চরিতাখ্যান—প্রেমদাস–১৭১২ খৃঃ । খঞ্জুর-তলাতে হয় ছায়া মনোহর। রত্নে রুচির যেন হয় কলেবর ॥ বিপ্র সব বসি করে প্রভুরে বেষ্টিত। বড় বড় তপস্বী প্রাচীন বিদিত ॥ গ্রীষ্মকালেতে সব শান্তিপুর-নিকটে। সন্ধ্যার সময়ে সবে বৈসে যাইয়া তটে ৷ প্রেমদাসের চৈতন্য-চন্দ্রোদয়-কৌমুদী। এই গ্রন্থ কবিকর্ণপুরের প্রসিদ্ধ সংস্কৃত গ্রন্থ চন্দ্রোদয় অবলম্বনে লিখিত। গ্রন্থকারের বিবরণ “বঙ্গভাষা ও সাহিত্যে”র ৩৭৮ পৃষ্ঠায় দ্রষ্টব্য। আমরা যে পুথিখানি হইতে নিয়ের অংশ গ্রহণ করিলাম, তাহা ও গ্রন্থ-রচনাকাল এক, সুতরাং অবলম্বিত পুথিখানি প্রেমদাসের নিজের পুথি কি না তাহা বলা যায় না। এই পুথির হাতের লেখা উৎকৃষ্ট ও ইহাতে বর্ণাশুদ্ধি নাই । স্ত্রীচৈতন্য-প্রতাপরুদ্র-মিলন। ( বাং ১১২০ সালের পুথি হইতে নকল করা হইল। ) জগন্নাথের রথের বিজয়-প্রত্যাসন্ন । নৃপতি প্রতাপরুদ্র হইল উৎপন্ন ॥ রাজার হঞাছে অতি উৎকণ্ঠ অন্তরে। শ্রীচৈতন্ত প্রভুর চরণ দেখিবারে ॥ প্রভু-অনুমতি তাহে নহে কদাচিতে । কেমনে প্রবোধ হয় নৃপতির চিতে ॥ ভট্টাচাৰ্য্য-কথা শুনি গোপীনাথ বলে। হেন বুঝি গজপতি (১) আইলা নীলাচলে ॥ নিকট হইল রথ বিজয়-সময়। নৃপতির আগমন উপযুক্ত হয়। (১) উড়িষ্যার রাজাদের গজপতি’ উপাধি বহুকাল চলিয়া আসিতেছে । >@凉 ১২৬৫