পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৩৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বিবিধ অনুবাদ–কৃষ্ণকর্ণামৃত—১৬শ শতাব্দী। ծՀԵթ. প্রলাপ করিয়া তথা এ সব বর্ণিল । স্ব-সঙ্গী বৈষ্ণব তাহা লিখিয়া রাখিল ৷ তবে কথোদিন রহেন বৃন্দাবনে। পাছে কৃষ্ণ নিজলীলা কৈল প্রবেশনে ॥ গুরু-পরম্পরায় এই লীলাগুক-বাণী । প্রসিদ্ধ লোকের স্থানে এই কথা শুনি ॥ এই তক হৈল লীলাগুকের চরিত। যাহার শ্রবণে কৃষ্ণ মিলএ ত্বরিত ॥ লীলাগুক পাএ মোর প্রণতি বিস্তর। সাক্ষাৎ কৃষ্ণের সঙ্গে যার প্রবত্তর ॥ এবে সে কহিএ তার বিশেষ বর্ণন । যাহা শুনি কৰ্ণ মন হয় সন্তৰ্পণ (১) ॥ অপূৰ্ব্ব বর্ণন সব প্রেমময় কথা। একমন হঞা শুন সুধাময় গাথা ॥ এই সব শ্লোকের অর্থ টাকাতে লিখিলা। সারঙ্গ-রঙ্গদা নাম টাকার হইলা ॥ তাহা অনুসারে লিখি প্রাকৃত কথনে। শ্ৰীকৃষ্ণদাস কবিরাজের বন্দিআ চরণে ॥ মহাপ্রভু কৃপাসিন্ধু চৈতন্ত গোসাঞি। যার গুণে কলির জীব তরিল সভাই ॥ কৃপা-সুধা-নদী তার বিশ্ব ভাসাইল। সদা নীচ স্থানে পূর্ণ হইয়া রহিল। সে প্রভু চৈতন্ত্য-পায় কর পরণাম । র্তন পাএ রন্থ মন হইয়া এক ভান ॥ এবে কহি শুন লীলাগুকের চরিত। তাহে কৃষ্ণ ভাবোদগম অতি বিপরীত ॥ প্রেমে উনমত লীলাগুক মহাশয়। বৃন্দাবনে যাত্র কৈলা হৈতে নিজালয় ॥ আপন অযোগ্য দেখি চিন্তিত হইলা । মুঞি ক্ষুদ্র প্রাণী অতি আশা বাঢ়ি গেলা ॥ (১) জুড়াইয়া যায়। 33ు: