পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৪৩৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দয়ারাম-প্রণীত সারদ-মঙ্গল। দয়ারাম দাসের পিতার নাম প্রসাদ দাস। ইনি কাশীজোড়কিশোরচক গ্রামবাসী। ইহার পরিচয়ের মধ্যে এইটুকু মাত্র পাওয়া গিয়াছে। ১০০ বৎসরের প্রাচীন হস্ত-লিখিত পুস্তক হইতে নিম্ন-প্রদত্ত অংশ উদ্ধৃত হইল। রচনা সম্ভবতঃ সপ্তদশ শতাব্দীর। বন্দ মাতা সরস্বতী বিষ্ণুর ঘরণী । কবি-কণ্ঠে উড় মাতা কোকিল-বাহিনী ॥ আপনি কহিলে গীত করিতে রচন । অতেব মায়ের পদে করিলু স্মরণ ॥ সুরেশ্বর দেশে সুবাহু নৃপতি। রাজা সুবাহু । দানে ধ্যানে যশে তার জগতে খেয়াতি ॥ যমকে যাতনা দিয়া জিনিল সংসার । অমর মলুকে লোক মরে নাঞি আর ॥ ভুবনে বিদিত রাজা ভারত-ভুবনে। যুদ্ধে পূৰ্ব্বে জিনেছিল শ্ৰীকৃষ্ণ-অৰ্জুনে ॥ শতেক বৎসর শিব পূজিল নিরাহারে। সেই পুণ্যে এক পুত্র হইল রাজারে ॥ লক্ষধর নাম থুইল নৃপতি আপনি। রাজকুমার লক্ষধর। গোবিন্দের নাম থুইল যেন গৰ্গ মুনি ॥ ষষ্ঠী-পূজা কৈল তার ষোড়শোপচারে। অন্নপ্রাশন হৈল কথো দিনান্তরে ॥ অষ্ট আভরণ কত দিল তার পায়। পদক প্রবাল মণি হীরা সমুদায় ॥ বাড়িল রাজার বেটা ভুজে তাড় বালা । ছাল্যা কালে বালক-সঙ্গে করে খেলা ৷ পঞ্চ বৎসরের শিশু ছেলে-বুদ্ধি ধরে। কন্তু নাঞি বৈসে রাজ-সভার ভিতরে ॥ সপ্ত বৎসরের শিশু পড়িবার বেলা । মরিয়া যাউক পুত্ৰ পড়িতে করে হেলা ।