পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৪৪৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


లిను কপটে কুলুপ-প্রদান । দেবী ভারতীর উপদেশ । বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । আসিতে বিলম্ব হবে বিদেশের কথা । অতএব বিদায় হইয়া যাই মাত পিতা ৷ পুত্রের বচনে দ্বিজ না দিল বারতা। মনেতে পড়িয়া গেল ধূলাকুট্যার কথা । বিদ্যা হৈল দ্বিজ বলে বৃদ্ধ লোক আমি। বিষ্ণু-পূজা সদাই করিয়া যাহ তুমি ॥ পিতার বচনে দ্বিজ পূজে নারায়ণে। কপাটে কুলুপ দিয়া রাখে জনাৰ্দ্দনে ॥ দ্বারেতে বসিয়া দ্বিজ করেন ভৎসন। কুলের ভাজন বেটা বলেন ব্রাহ্মণ ॥ সারদার মায়া যত শুন সৰ্ব্বজন । এইরূপে বন্দী হৈল দ্বিজ জনাৰ্দ্দন ॥ মা বাপে কহিয়া গেল রাজার কুমারী। সরস্বতী-পূজা আমি রহিব শৰ্ব্বরী। ধন কড়ি বিস্তর লইল রূপবতী । নৌকা-ঘাটে উপনীত নিশাভাগ রাতি ॥ সরস্বতী সেবকে কহেন বিবরণ। যেইরূপে দাণ্ডায়াছে কন্ত পঞ্চ জন ॥ তোমার কারণে আমি করিলাম এত । এক রাত্রে লৈয়া যাব ছমাসের পথ ॥ বিংশতি বৎসর দুঃখ পাইলে বনবাসে। বসাইব রাজ-পাটে বিভা দিব শেষে ॥ পিতাপুত্রে পরিচয় করাইব চল। কন্ত জিজ্ঞাসিলে তুমি কিছু নাহি বোলে । কথা এ জানিলে ধনী যাবে নাহি আর । ধূলাকুট্যা বলে মাতা মহিমা তোমার। বিলম্বেতে কাৰ্য্য নাহি বিসরে রজনী। কর্ণধার হইলেন কোকিল-বাহিনী ।