পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৫২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কৃষ্ণচন্দ্রীয় যুগ-ভারতচন্দ্র—১৭১২-১৭৬০ খৃঃ। Ꮌ8ᏄᎼ জননী ডাকিনী হৈল মোর মোর প্রাণনাথে বলে চোর বাপ অনর্থের হেতু ধূমকেতু (১) ধূমকেতু বিধাতার হৃদয় কঠোর ॥ চোর ধরা গেল শুনি রাণী অন্তঃপুরে করে কাণাকণি দেখিবারে ধায় রড়ে কোঠার উপরে চড়ে কাদে দেখি চোরের মুখানি ॥ রাণী বলে কাহার বাছনি মরে যাই লইয়া নিছনি কিবা অপরূপ রূপ মদনমোহন-কুপ ধন্য ধন্ত ইহার জননী ৷ কি কহিব বিদ্যার কপাল পেয়েছিল মনোমত ভাল আপনার মাথা থেয়ে মোরে না কহিল মেয়ে তবে কেনে হইবে জঞ্জাল ॥ হায় হায় হায় রে গোসাঞি পেয়েছিনু সুন্দর জামাই রাজার হয়েছে ক্রোধ না মানিবে উপরোধ এ মরিলে বিদ্যা জীবে নাই ৷ এইরূপে পুরবধূগণ সুন্দরে বাখানে জনে জন কোটাল সত্বর হয়ে চলিল দুজনে লয়ে ভেট দিতে যেখানে রাজন। চোর লয়ে কোতোয়াল যায় দেখিতে সকল লোক ধায় বালক যুবক জরা কাণ খোড়া করে ত্বর গবাক্ষেতে কুলবধু চায়। কেহ বলে এ চোর কেমন এখনি করিল চুরি মন বিদ্যারে কে মন্দ বলে ভারত কহিছে ছলে পতি নিন্দে আপন আপন ॥ (১) ধূমকেতু (কোটাল ) সুন্দরকে ধরিয়াছিল, এজন্য সে আকাশের ধূমকেতুর ন্তায় ভয়াবহ।