পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৫৪০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


>8b* উল্কা রায়ের নিবেদন । মধু সিংহের এজাহার। রাজার ক্ৰোধ । বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । দূর হতে দণ্ডবৎ করে উল্কা রায়। পাত্র দেখি আরজবেগীর পানে চায় ॥ বুঝিয়া আরজবেগী যোড়-কর করি। নিবেদিলে কোটাল আইলে চোর ধরি ॥ হার তলোয়ার চোর সকল সহিতে । সমুখেতে খাড়া এবে কি আজ্ঞা ইহতে ॥ ইঙ্গিতে আদেশ হৈল সমুখে আনিতে। আন আন বলি সবে লাগিল ডাকিতে ॥ ধীরে ধীরে চোর-সনে নিকটে আসিয়া। দণ্ডবৎ করি গলে বসন বান্ধিয়া ॥ কর-যোড়ে উল্কা রায় কহে বিবরণ। মহারাজ-পুণ্য-বলে র্বাচিছে জীবন ॥ ধরিয়া আনিছে এই সেই চোর দুষ্টে । ছিলে কিছু অন্ন জল আমার অদৃষ্টি । নিবেদিল মধু সিংহ যোড় করি কর। চুরি করি এই বেটা আর ধনেশ্বর ॥ বিত্তের নাহিক ওর চুরির প্রসাদে । চিরকাল পরে এবে ঠেকিছে আপদে ॥ ধনপতি চন্দ্রভান ধনী মণি (১) আর । মাঝি সাথে কৈল খাড়া সমুখে রাজার। হারা (২) হার তলোয়ার পাত্র (৩) হাতে করি। মছলন্দের কাছে নিয়া রাখি দিল ধরি ॥ দেখি নরপতি অতি হরিষ অন্তরে। তথাপি আরক্ত আখি বাহে স্পষ্ট করে । অরুণ বদন ঘোর গভীর রায়েতে। বলিল আরজবেগী আয়ত আগেতে ॥ পুছত তস্করে অরে গুণ্ড যাদুগীর। তক্ষকের মণি কৈল ফুয়েতে বাহির । (৪) (১) দুই ভূত্য। (২) অপহৃত। (৩) মন্ত্রী। (৪) তক্ষক সপের মণি ফুৎকার দ্বারা বাহির করিলি ; অর্থাৎ রাজবাড়ী হইতে এত সহজে বহুমূল্য সামগ্ৰী চুরি করিয়া লইলি ।