পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৫৫২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Уб о о বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । হীন-পতি-সঙ্গ দুরে গেল রঙ্গ হইল স্বরভঙ্গ কান্দি ভারি। জল নাহি দশনে হীন তনু বসনে ঘন ঘন দশনে ওষ্ঠ দারি (১)। শোকে ভেদে মজ্জা দূরে গেল লজ্জা করি ভূমিশয্যা পদ্মমুখী। বলে হায় বিধি যা হরিলি নিধি রে জলি যায় হৃদি রে হেন দেখি ॥ কেন প্রাণ যায় না প্রিয়-পাছে ধায় না বুঝি পথ পায় না নিঃসরিতে। কি করি প্রতীক্ষা করিবারে ভিক্ষা না হইলে শিক্ষা এত মতে ॥ নারায়ণ কহিছে অপরাধ করিছে হরি না সহিছে মত্ত-মতি । ত্রিভঙ্গী কালারে ডাকিয়া বালারে দূর করি জালারে লক্তপতি (?) ॥ শোকেতে অবশ হৈয়া ভূমিতলে ছিল শুইয়া মূৰ্ছা পাইয়া মুনেত্রা সুন্দরী। মেদিনী শোভন করি ঘন ঘন স্মরে হরি মুরছিত আপনা পাসরি ॥ স্বল্প । অনাথে করুণা হৈলে স্বপনে উপায় কৈলে দয়াময় আপনে তখনে । তেজিয়াছ পরসাদ (২) তে কারণে পরমাদ এবে কেন বিষাদ বদনে ॥ ব্ৰহ্মা-আরাধিত যাহা তুমি তুচ্ছ কৈলা তাহ দেবরাজ না পায় যতনে। মুখের প্রসাদ ভ্ৰষ্ট সকল দ্রব্যের শ্রেষ্ঠ নির্দিষ্ট করিয়া মান মনে ॥ উঠ করি নিদ্রা ভঙ্গ ছাড়হ এ সব রঙ্গ দৌড়াইয়া যাও পুনঃ ঘরে। (১) বিদীর্ণ করিয়া। (২) পরসাদ = প্রসাদ।