পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬০৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রাচীন সঙ্গীত—কবির গান—গোজলা ও কেষ্টা—১৭শ শতাব্দী। ১৫৫১ আমি এসেছি বিবাগে, (১) মনের বিরাগে, পীরিতি-প্রয়াগে মুড়াব মাথা । আমি রসিকের স্থান, পেয়েছি সন্ধান, তুমি নাকি জান প্রেম-বারতা ৷ কাপট্য তেজিয়ে, কহ বিবরিয়ে, ইহার লাগিয়ে এসেছি হেথা ॥ হায় কোন প্রেম লাগি, প্রহ্নলাদ বৈরাগী, মহাদেব যোগী কেমন প্রেমে । কি প্রেম-কারণে, ভগীরথ-জনে, ভাগীরথী আনে ভারত-ভূমে । কোন প্রেমে হরি, ব’ধে ব্রজনারী, গেল মধুপুরী করে অনাথ । কোন প্রেমফলে, কালিন্দীর কূলে, কৃষ্ণ-পদ পেলে মাধবী লতা ॥ গোজলা গুই । এস এস চাদবদনি। এ রসে নীরস করো না ধনি ৷ তোমাতে আমাতে একই অঙ্গ, তুমি কমলিনী আমি সে ভৃঙ্গ, অনুমানে বুঝি আমি সে ভুজঙ্গ, তুমি আমার তায় রতনমণি ॥ কেষ্ট৷ মুচি। হরি কে বুঝে তোমার এ লীলে। ভাল প্রেম করিলে ৷ হইয়ে ভূপতি কুবুজা যুবতী পাইয়ে শ্ৰীপতি শ্ৰীমতী রাধারে রহিলে ভুলে ৷ (১) বিবাগ ="বিবেক" শব্দের অপভ্রংশ।