পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬১৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১৫৫৭
প্রাচীন সঙ্গীত—কবির গান—হরু ঠাকুর—১৭৩৮-১৮১৩ খৃঃ।

চিতেন।

একি অকস্মাৎ ব্রজে বজ্রাঘাত
কে আনিল রথ গোকুলে।
অক্রূর-সহিতে তুমি কেন রথে
বুঝি মথুরাতে চলিলে॥

অন্তরা।

শ্যাম ভেবে দেখ মনে তোমারি কারণে
ব্রজাঙ্গনাগণে উদাসী৷
নাহি অন্য ভাব শুনহে মাধব
তোমারি প্রেমের প্রয়াসী॥

চিতেন।

শ্যাম নিশিভাগ নিশি যথা বাজে বাঁশী
তথা আসি গোপী-সকলে।
কিসে হলেম দোষী তা তোমায় জিজ্ঞাসি
কি দোষে এ দাসী ত্যজিলে॥

মহড়া।

যদি চলিলে মুরারি তেজে ব্রজপুরী
ব্রজ-নারী কোথা রেখে যাও।
জীবন-উপায় বলে দাও॥
হে মধুসূদন করি নিবেদন
বদন তুলিয়ে কথা কও॥

চিতেন।

শ্যাম যাও মধুপুরী নিষেধ না করি
থাক হরি যথা সুখ পাও৷
একবার সহাস্য বদনে বঙ্কিম নয়নে
ব্রজগোপীর পানে ফিরে চাও॥

মহড়া।

আমারে সখি ধর ধর।
ব্যথার ব্যথিত কে আছে আমার॥
পথশ্রান্তে নহি গো কাতর।
হৃদে নবঘন-দলিতাঞ্জন-বরণ উদয়ে অবশ শরার॥