পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


〉(なや? বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । দৈব-যোগে যদি প্রাণনাথ হলো এ পথে আগমন, কও কথা একবার কও কথা তোল ও বিধুবদন,— পিরীত ভেঙ্গেছে ভেঙ্গেছে তায় লজ্জা কি, এমন তো প্রেম ভাঙ্গাভাঙ্গি অনেকের দেখি,— আমার কপালে নাই মুখ, বিধাতা হলো বিমুখ, আমি সাগর ছেঁচেও মাণিক পেলাম না ৷ এমন ভাব-রাখা (১) ভাব কোথা শিখিলে। সে ভাব কোথা হে যে ভাবে ভুলালে। ভাব দেখি নব ভাবে কি ভাবে ছিলে । ভাবে ভাব করে ভাবান্তর এখন তার অভাবে ভাবালে ॥ স্বভাবে অভাব আজ দেখি হে তোমার, এ কি ভাবের দেখা সখা আবার, অনুরোধে প্রবোধিতে মন ভাল ভাবের উদয় দেখালে ৷ o মরি মরি তোমার ভাবে ঝুরি তুমি জান কত ছল,মুখে বঁধু যেন মধু হৃদে হলাহল,— অঙ্গ-সঙ্গ রঙ্গরস নাই এখন সে পাপ, . মন ভেঙ্গেছে আছে লোক-দেখা আলাপ,= , দেখে আখি হইত মুখী তাও কি ক্রমে ক্রমে ঘুচালে । যাক রে প্রাণ– বিচ্ছেদে প্রাণ আমরি গেল গেল। যত সুহৃৎ-ভাঙ্গ লোকের কুরীত-মন্ত্রণায় সাধের পীরিত ভেঙ্গে তুমি আছত ভাল। দেখা শুনা পুনঃ হবে হে তার আশা ঘুচিল । ক’রে হাস্তেরে হাস্ত-কৌতুক পথে দেখা হলে যাব চলে অঞ্চলেতে ঢেকে মুখ,— ধ’রে ভালবাসা-ভাব, হলো ভাল লাভ, মুখের আশা করে প্রেমের বাসা ভাঙ্গিল ॥ (১) ভাব-রাখা = বাহিরে ভদ্রত রাখা ।