পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রাচীন সঙ্গীত-কবির গান—গদাধর—২০শ শতাব্দীর পূর্বাৰ্দ্ধ। ১৫৬৭ তোর কি মা নাই তোর কি মা নাই অমনি সরমে মরে যাই । তাদের বলি আমার পিতে এসেছিলেন নিতে শিবের দোষ দিয়ে কাদি বিরলে ॥ আমার মনের ব্যথা আছে মনে গাথা মা কি বলিবে অন্তে পিতৃদত্ত কন্তে চক্ষে দেখে দিলে পাগল স্বামী, সকলি জান তুমি, এ কি কবার কথা— ঘরেতে সতীনের জালা গো তাওত শুনেছ সব, শিব সোহাগিনীর প্রায় রেখেছেন মাথায় সদাই কল কল রব । তরঙ্গিণীর অভিমানের কথা, আমার সয় না আমার সয় না আমার হয় না সষ্ণতা (১)। আমি ভাবি কোথা যাব কোথায় গে জুড়াব কাদি বসে বিন্ধ-বৃক্ষ-মূলে। হিমালয় আর কৈলাস-শিখর নহে দূর যাতায়াতে, মনে হলে মা দিনে শতবার তত্ত্ব নিলে ত পার মা নিতে, বাৎসল্য-ভাবেতে তাচ্ছল্য কিসে শুনি কহ মা। আমি হতেম তোমার মা জানাইতাম মা মায়ের কত স্নেহ মা । তোমার কঠিন হৃদয় পিতাও নিদয় হোক মা ও হোক মা। একবার তত্ত্বত নিতে হয় আমি এ সুখ-শরদে মরি মনের খেদে কথায় কথায় কোন বা বলে পাঠালে। কাল স্বপনে মাধব আমার কুঞ্জে এসেছিল। রজনীতে ছিলাম শুাম সহিতে ললিতে গো প্রভাতে সেই শু্যাম কোথায় গেল ॥ (১) সঞ্চত = সহিষ্ণুতা।