পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬৪৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রাচীন সঙ্গীত—কৃষ্ণকমল গোস্বামী—জন্ম ১৮১০ খৃঃ। ゞ(rb°。 নবদ্বীপ নাম, নিরুপম ধাম, মুরধুনি-তীরে হল না গোচর, ব্ৰহ্মা ত হল না ব্ৰহ্ম-হরিদাস, নারদ এখনো হয় নাই শ্ৰীবাস ; ব্রজলীলার অবকাশ হয় নাই,–( এখনো যে )– তবে, কি ভাবে এ ভাব দেখিবারে পাই ॥ তা হলে ললিত হইত স্বরূপ, বিশাখা হইত রামানন্দ-রূপ, সখা সখী সবে, আনন্দিত ভাবে, হ’ত কি না তবে মহাস্ত-স্বরূপ ; আর এক মনে হল যে সন্দেহ, রাধার আমার কেন রল ভিন্ন দেহ ; - দুই দেহ এক দেহ হয় নাই, ( এখনো যে )— আমি তা বিনে গেীর কভু হব নাই ॥ রাধিকা। প্রাণবল্লভ ! আমি যেমন তোমার সকল ভাব জানি, কিন্তু কৃষ্ণ । তুমি কি আমার মনের ভাব তেমন জান ? বোধ করি, কিছুই জান না। প্রাণাধিকে ! বল দেখি, আজ কি জন্তে বিষণ্ণ মনে এমন প্রশ্ন করলে ? আমিও তোমার সকল ভাব জানি। রাধিকা। রসরাজ ! আজি তোমার কাছে আমার একটা স্বপ্ন-কথা ব’লব ; সেই আশ্চৰ্য্য স্বপ্নটা দেখে অবধি, মন আমার, জানি না কেন, - অধৈৰ্য্য হ’য়েছে। কৃষ্ণ । রাধিকা । বিনোদিনি ! স্বপ্নে কি দেখেছ বল শুনি । ওহে বধু কও দেখি, সে নাগর কে,-- স্বপনে আজ দেখেছি যাকে । সে কি তুমি না কি আমি বঁধু! নিশ্চয় বল আমাকে ॥ তোমার মত অঙ্গের গড়ন, আমার মত গৌর-বরণ, সে যে ব্ৰহ্মার দুর্লভ হরিনাম বিলা’তেছে যা’কে তা’কে ॥ চতুভূজ আদি যত, কাননে দেখেছি কত, আমার সে সব দিকে মন গেল না, ভুললাম কেন তা’কে দেখে। ও সে অতুলনা রূপের কি দিব তুলনা, জগতে মিলে না যাহার তুলনা,