পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬৪৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


(సెఇ সর্থীগণ । বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । দিব্যোন্মাদ । রাগিণী—টোরি, তাল মধ্যমান। তাই বলিরে ভাইরে সুবল, তুই ত কানাই পেয়েছিলি। না বুঝে তার চতুরালি, হারাধন পেয়ে হারালি ॥ যখন স্যাম-সুধাকরে, নয়ন ধরেছিল করে, তখনি তার করে ধ’রে মোদের কেন না ডাকিলি ॥ পুনঃ যদি কোন ক্ষণে, দেখা দেয় কমলেক্ষণে, যতনে ক’রে রক্ষণে জানা’বি তৎক্ষণে ; কেও ধ’র্ব তার কমল করে, কেও থাকৃব তার চরণ ধরে, তবে আর আমাদের ছেড়ে যেতে না’রবে বনমালী ॥ শ্রীরাধা-নিকেতন । শ্রীরাধা বিষগ্নভাবে আসীনা। ( সখীগণের প্রবেশ ) (মুরে) উঠ উঠ বিনোদিনি ! কথা বল গো শুনি ; কেন কমলিনি ! হ’য়েছ মলিনী ? কি ভাব গো, ব’সে একাকিনী ? রাধিকা। (স্বরে) এস সবে মোর প্ৰিয়নৰ্ম্ম-সহচর। বঁধু ত এল না ব্রজে, বল কি আচরি ? শুন প্রাণ সখি, মোর দুঃখের নিদান ; প্রাণনাথ গেল, তবু নাহি যায় প্রাণ ! ওরে অভাগীর প্রাণ ! তোরে তাই বলি ; শ্ৰীকৃষ্ণ-বিমুখ হ’য়ে কোন কাযে রলি ? ওরে । যার অাদরে তোর ছিল শতাদর, সে যদি ত্যজিল ক’রে হতাদর ; এখন কার আদরে বল হবে সমাদর, থাকিয়ে কি ফল হ’য়ে অনাদর। রাধিক । মনোদুঃখ কারে কই, কেবা বুঝে সই ? কি ছিলাম, কি হলাম, আরো কিবা হই ।