পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SNeశ్చి বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । তাল–খয়রা । বঁধু চরণ দুখানি, পসারি সজনি, এইখানে বসিত গো । কত আদরে, বিনোদ-নাগর আমারে, উরু পরে করে বসাইত গো ॥ করে করি’ করি-দশন-চিরুণী, আচরি চিকুর বানাইত বেণী, সে বেণী সম্বরি, বাধিত কবরী, আবার মালতীর মালে বেড়াইত গো ॥ তাল–রপক । কত সাধে সাজাইত, মুখ-পানে চেয়ে রইত, বঁধুর বিধুবদন ভেসে যেত,— দুটা নয়নের(ই) জল-পুঞ্জে ॥ তাল—খয়রা । বঁধু আপন শ্ৰীকরে, কুসুম-নিকরে, তুলিয়ে আনিত গে। কত যতন ক’রে, মনের মত করে, মনমথ-শয্যা নিরমিত গো ॥ - শয়ন করিয়ে সে কুসুম-শেযে, হৃদয়ের মাঝে রেখে মোরে সে যে, কতই বা কৌতুকে, মনের উৎসুকে, সারানিশি জেগে পোহাইত গো ॥ তাল–রপক । কি মোর পাষাণ হিয়ে, হেন বঁধু হারা হয়ে, হিয়ে যায় নাই কেন বিদরিয়ে, থাকিয়ে কি হ’ল গুণ যে ॥ (সচকিত ভাবে অবস্থিতি) রাগিণী—বিঝিট। ললিতা। দেখ না বিশাখে । রাইয়ের কি ভাব হইল ; কি ভেবে শুদামভাবিনী নীরবে রহিল ?