পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ురి 8 বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । বক-শ্রেণী যায় চ’লে, ভাবে মুক্তাহারে দো’লে, বিষ্ক্যং দেখি ভাবে পীতাম্বর। হেম-তনু রোমাঞ্চিত, প্রফুল্ল কদম্বজিত, যথোচিত শোভিত হইল ; ক্ষুব্ধ-দেহ লুব্ধ-মনে, অনিমিষ ছনয়নে, মেঘ-পানে চাহিয়ে রহিল। রাধিক । (সখীগণের প্রতি—মুরে) আয় আয় সজনি, একবার দেখ সজনি, সত্বর এসে এখনি ; অসাধনে চিন্তামণি, বুঝি বিধি দিল আনি, দুঃখিনীদের সয় জানি। রাগিণী—ললিত, তাল—আড়া। আয় আয়, দেখ দেখি গো সবে, এই সে, মোরা যার উদ্দেশে বনে এসে, দুখের সাগরে ভেসে, —দেখিলাম সই যে সকল । ঐ দেখ, সে আমাদের ভালবেসে, সে যে আপনি এসে দেখা দিল । এ যে বড় ভাগ্যোদয়,— সে যে নিঠুর হয়েছে সদয়, মোদের জুড়াইতে তাপিত হৃদয় বৃন্দাবনে উদয় হ’ল, শুন গো প্রাণ-সজনি, আজ বুঝি গত-রজনী, হ’বে মোদের শুভ জানি, শুভক্ষণে পোহাইল । তাল—একতালা । বহুদিনে অরি করি? পরাজয়, ঘরে এল হরি হয়ে গো বিজয় । সহচরীচয়, শুভ পরিচয়, কর ব’লে সবে "হরি জয় জয় ॥ হৃদয়ে করিয়ে কুকুম-লেপন, মুক্তাহার তাহে দিব আলিপন, পয়োধরে করি’ ঘটের স্থাপন, আম্রশাখা হবে বঁধুর কর-কিশলয় ॥