পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬৬৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । রাগিণী—মনোহরসাহি, তাল-লোভা । রাধিক । হায় হায় ! কি শুনা’লি কি শুনা’লি গো প্রাণ-আলি !— 5ੋ ] —আমার বনমালী বুঝি ব্রজেতে নাই ! —( কি প্রমাদের কথা )–( আমার মরমে বেদনা দিলি ) —( আমার নিবান আগুন জ্বালাইলি )— তবে প্রাণনাথ বিনে, কেন এতদিনে, বজ-বুকীর প্রাণ বাহির হয় নাই ! —( প্রাণ কি পাষাণ হ’তেও কঠিন হ’ল )– আমি ম’রেছিলাম, সে তবেঁচেছিলাম, আলি ! তোরা সখি আলি, কেন হেথা এলি ; কেন গো বাচা’লি, বাচা’লি রাই ? —( যদি প্রাণনাথ আমায় ছেড়ে গেল, আমার বাচন হ’তে মরণ ভাল 1)— (পুনরায় মূৰ্ছ এবং গোপীগণের বিলাপ করিতে করিতে মূচ্ছিত হইয়া পড়া) 来 豪 聚 豪 চন্দ্রার প্রবেশ । ( সাশ্চর্য্যে )– ও মা ! এ কি সৰ্ব্বনাশ আজ বিপিনে !— হায় হায় ! একি বিপদ হেরি বিপিনে ! এ সব কনক পুতলী, পড়িয়াছে ঢলি, বিপিন-বিহারী শ্ৰীহরি বিনে । গজোৎখাতে যেমন কমলকানন, মহাবাতে যেমন হেম-রস্তা-বন ; আহা ! সেই দশা দেখি হ’ল সম্ভাবন, গোকুলের কুল-যুবতীগণে । —(হায় ! কেন বা আজ এমন হ’ল—কাননের মাঝে)– হায় হায় ! কেন আচম্বিতে, ত্যজিয়ে সম্বিতে, এ সব বনিতে আছে পড়ে অবনীতে ; –( এদের ভাব যে বুঝিতে নারি )– হে’রে বিপরীতে, ধৈর্য ধরিতে, নাহি পারি চিতে, হ’ল কি মরিতে ; সহসা কি দশা হ’ল সবাকার, সবাকার যেন দেখি শবাকার ;