পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৬২২ - - বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । ( & ) কত আর সুখে মুখ দেখিবে দর্পণে। এ মুখের পরিণাম বারেক না ভাব মনে ॥ শু্যাম কেশ শ্বেত হবে, ক্রমে সব দন্ত যাবে, পলিত কপোল কণ্ঠ হবে কিছু দিনে । লোল চৰ্ম্ম কদাকার, কফ কাস দুর্ণিবার, হস্ত-পদ-শিরঃ-কম্প ভ্রান্তি ক্ষণে ক্ষণে ॥ অতএব ত্যজ গৰ্ব্ব, অনিত্য মানিবে সৰ্ব্ব, দয়া জীবে নম্রভাবে ভাব সত্য নিরঞ্জনে ॥ ( 8 ) মন যারে নাহি পায় নয়নে কেমনে পাবে। যে অতীত-গুণত্রয়, ইন্দ্রিয়-বিষয় নয়, রূপের প্রসঙ্গ তায় কেমনে সম্ভবে ॥ ইচ্ছামাত্রে করিল যে বিশ্বের প্রকাশ, ইচ্ছামাত্রে রাখে ইচ্ছামাত্রে করে নাশ, সেই সত্য সেই মিত্র নিতান্ত জানিবে ॥ ( t ) কোথায় আনিলে আমায়, আমায় কোথায় আনিলে। আনিয়ে সাগর-মাঝে তরি ডুবালে। নাহি দেখি পারাবার, চারিদিক্‌ অন্ধকার, প্রাণ বুঝি যায় এবার ঘূর্ণিত জলে। কোথা রৈল মাতা পিতা, কে করে স্নেহ মমতা, প্রাণ-প্রিয়া রৈল কোথা বন্ধু সকলে ॥ ( ७ ) মন এ কি ভ্রান্তি তোমার। আবাহন বিসর্জন বল করো কার ॥ যে বিভু সৰ্ব্বত্র থাকে, ইহাগচ্ছ বল তাকে, তুমি কেবা আন কাকে, একি চমৎকার ॥ অনন্ত জগদাধারে, আসন প্রদান করে, ইহ তিষ্ঠ বল তারে, এ কি অবিচার ॥ দেখি একি অসম্ভব, বিবিধ নৈবেদ্য সব, তারে দিয়া কর স্তব, এ বিশ্ব যাহার ॥