পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬৮৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
১৬২৮
বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয়।

( ৮ )

আড়খেম্‌টা।

প্রয়োজন আর নাইকো ফুলে,
তোরে হেরে অঙ্গ জ্বলে।
মানে মানে যা মালিনি,
অপমান হবি শেষ কালে॥
শিবপূজা সাঙ্গ হল,
এখন কি তোর ঘুম ভাঙ্গিল,
রঙ্গ ভঙ্গ জানিস ভাল,
এক রকমে চিরকাল কাটালে॥

( ৯ )

জলদ তেতালা।

মালিনি তোর রঙ্গ দেখে অঙ্গ জ্বলে যায়।
মিছে কান্না আর কাঁদিস-নে,
জ্বালাস্‌-নে আমায়॥
মালিনি লো তোর জন্যে,
পূজা হয় না ফুল বিনে,
উপবাসী রাজকন্যে, মরে পিপাসায়॥

( ১০ )

কাওয়ালী।

গঞ্জনায় ভয় করো না বিধুমুখি।
যে যা বলে সয়ে থেকো,
হয়ে আমার দুঃখের দুঃখী॥
মাতঙ্গ পড়িলে দলে, পতঙ্গেতে কি না বলে,
কণ্টকেরি বনে গেলে, কাঁটা ফোঁটে পায়,—
তা ব’লে কি ফাঁকে ফাঁকে পা বাড়ান যায়,—
ডুবেছি না ডুবতে আছি,
পাতাল কত দূরে দেখি॥

( ১১ )

গা তোলরে নিশি অবসান।
বাঁশ-বনে ডাকে কাক, মালী কাটে কপি শাক,
গাধার পিঠে কাপড় দিয়ে রজক যায় বাগান॥