পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৭২৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সহজিয়া-সাহিত্য—রাধারস-কারিকা—১৮শ শতাব্দী। እõዓ » কৃষ্ণের অবিদ্য (১) কিম্বা কৃষ্ণের সাক্ষাতে। গোপীগণ জানে তাহ সেই রাধা হৈতে ॥ রাধার সমান সুখ নাহি ত্রিভুবনে । , লক্ষ্মী-আদি মহিষী না পায় গণনে ॥ গোপিকা ভাবয়ে নিত্য যার ভাব লয়্যা। সুস্থির গম্ভীর ভাবগম্য হইয়া ॥ অমৃত খাইয়া কেবা জীয়ন্তে মরয়। প্রেমানুগ কিবা হয় দান রাগাশ্রয় ॥ তার অনুগত কাৰ্য্য করে কিবা রীতে । বহু গ্রন্থ কৈল কৃষ্ণ বস্তু জানাইতে ॥ সেই বস্তু জানে কেহে সহস্ৰে কহিতে। জানিয়াত নিরূপণ না পারে করিতে ॥ সে পাত্র মধ্যম হয় বস্তুমাত্র জানি । তার মধ্যে যার গম্য কোটি মধ্যে গণি ॥ গোস্বামী করিল গ্রন্থ সার নিরূপণ । ইহাতে পাইএ সাধ্য সিদ্ধির ভজন ॥ নৈঠিক জনার সাধ্যি বিষয় সংবাদ । ইহাতে উত্তম যাতে করি অনুবাদ ॥ সিদ্ধি জনার হয় অংশ-ব্রহ্ম-প্রাপ্তি । ইহা বুঝিবারে হৈল অতএব শক্তি বৈধী মতে রস হয় সাধারণী । অন্তরঙ্গ রতিরঙ্গ সমস্তেতে গুণি ॥ নিতি নানা নাই কার করয়ে বসতি । নবীন-যৌবনা রাধা ত্রিভুবনে খ্যাতি ॥ কালে কালে বৃন্দাবনে প্রাপ্তি দেহ ধরে। তাহার স্বরূপ কৃষ্ণ শুনি নিরাকারে ॥ সেই রূপেতে করে কুঞ্জেতে বিহার । সেই কৃষ্ণ এই রাধা একুই আকার । রাধা হৈতে নিরাকার রসের স্বরূপ। অতএব দুই রূপা হয় এক রূপ ৷ (১) অবিস্ত = অবিদ্যমানে।