পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৭৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পদাবলী—গোবিন্দ দাস—১৬শ শতাব্দী। రిఫిసి মঝু মুখ দরশি বিহসি তনু মোড়ই বিগলিত মোহন বংশ। না জানিয়ে কোন মনোরথে আকুল কিশলয়-দলে (১) করু দংশ ৷ অতও (২) সে মঝু মন জলতহি অনুখন দোলত চপল পরাণ । গোবিন্দ দাস মিছই আশোয়াসন্তু (৩) অবহু না মিলল কান ৷ ঢল ঢল কাচা অঙ্গের লাবণী অবনী বহিয়া যায়। ঈষৎ হাসির তরঙ্গ-হিলোলে মদন মূরছা পায় ॥ কিবা সে নাগর কি খনে দেখিন্তু ধৈর্য রহল দূরে। নিরবধি মোর চিত বেয়াকুল কেন বা সদাই ঝুরে ॥ হাসিয়া হাসিয়া অঙ্গ দোলাইয়া নাচিয়া নাচিয়া যায়। নয়ন-কটাক্ষে বিষম বিশিখে পরাণ বিধিতে ধায় ॥ মালতী-ফুলের মালাট গলে হিয়ার মাঝারে দোলে। উড়িয়া পড়িয়া মাতল ভ্রমরা ঘুরিয়া ঘুরিয়া বুলে। কপালে চন্দন-ফোটার ছটা লাগিল হিয়ার মাঝে । না জানি কি ব্যাধি মরমে বাধল না কহি লোকের লাজে ॥ এমন কঠিন নারীর পরাণ বাহির নাহিক হয়। না জানি কি জানি হয় পরিণাম দাস গোবিন্দ কয় ॥ সজল জলধর অঙ্গ মনোহর ছটায় চাহিল মোহে (৪) । ঈষৎ হাসিয়া মনের আকুতে অরুণ নয়নে চাহে। কি আজ পেখলু বর-বিনোদ-নাগর কেলি-কদম্বের তলে । রূপ নিরখিতে আঁখির লাজ ভাসল আনন্দ-জলে (৫) ॥ বকুল-মালা দিয়া কুন্তল টানিয়া ময়ূর-পুচ্ছের ছাদে। রঙ্গিণী-লোচন খঞ্জন বাধিতে পাতিল বিষম ফাদে ॥ মকর-কুণ্ডল সঙ্গে অনঙ্গ দোলে গণ্ডে দরপণ ভানে। ভালে সে মদন দেখি প্রতিবিম্বিত (৬) গোবিন্দ দাস অনুমানে ॥ (১) এস্থলে কিশলয়-দল অর্থ বংশী। (২) সেই হইতে । (৩) গোবিন্দ দাসকে মিথ্যাই আশ্বাস দিলাম। (৪) আমাকে । (৫) পুলকাশতে চক্ষু লজ্জা ভাসিয়া গেল। (৬) তাহার দর্পণভূল্য গণ্ডে মদনকে উত্তমরূপে প্রতিবিম্বিত দেখা যায়।