পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৭৬৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রাচীন গদ্য-সাহিত্য—মৃত্যুঞ্জয়ের প্রবোধ-চন্দ্রিকা—১৮১৩ খৃঃ । ১৭১১ ইহা মনে করিয়া ঐ বিশ্বভণ্ড শর্কর ভাণ্ড গাছের তলায় ফেলাইয়া বিশ্ববঞ্চকের তদ্রুপ সপি পাত্র লইয়া মনে মনে তাহাকে ফাকি দিয়া অতি বেগে প্রস্থান করিল। তদনন্তর ঐ বিশ্ববঞ্চক সরোবরে স্নান করিয়া তরুতলে আসিয়া স্বকীয় স্থত কুম্ভ না দেখিয়া তাহার শর্কর কুম্ভ অবলোকন করিয়া মনে মনে অত্যন্ত আহলাদিত হইয়া কহিল আজি এ বেটা বড় ফাকি পাইয়াছে ঈশ্বর বিড়ম্বিত স্বয়ং বিড়ম্বিত হয় আমার অদ্য অনায়াসে যে লাভ হইল সেই ভাল। এইরূপ মনে করিয়া পরমানন্দে নিজ মন্দিরে গমন করিল ! বাটীর নিকটে গিয়া আপন স্ত্রীকে ডাকিল ও ঠকের মা ওরে দৌড়িয়া শীঘ্র আয় মাথা হইতে ভার নাম আজ এক বেটাকে বড় ঠকাইয়াছি। তাহার স্ত্রী গতিক্রিয়া কহিল ওগো আমি যাইতে পারিব না আমার হাত জোড়া আছে। তৎপতি বিশ্ববঞ্চক আলয়ে আসিয়া স্ত্রীকে কহিল আয় এই নে আজি বড় মজা হইয়াছে দিব্য সার গুড় এক কৃপা পাওয়া গিয়াছে এক বেটা লক্ষ্মীছাড়া আপন এই গুড় ফেলাইয়া আমার সেই ঘিয়ের ঘড়া জানিস তো তাহ নিয়া অমনি প্রস্থান করিয়াছে। মনে মনে বড় হর্ষ হইয়াছে যে আজি যথেষ্ট ঘৃত পাইলাম পশ্চাৎ টের পাইবে। যা শীঘ্র রাধা বাড়া কর আমি নাইয়াই আসিয়াছি ক্ষুধাতে পেট জলিতেছে। স্ত্রী কহিল গুড় হইলেই কি রাধা হয় তেল নাই লুণ নাই চাউল নাই তরকারি পাতি কিছুই নাই কাঠগুলা সকলি ভিজ বেসাতি বা কিরূপে হবে। তাতে আবার বেী ছড়ী অশুদ্ধ হইয়াছে কুটনা বা কে কুটিবে বাটনা বা কে বাটিবে। তৎপতি কহিল আজি কি ঘরে কিছুই নাই। দেখ দেখি ক্ষুদ কুড়া যদি কিছু থাকে তবে তার পিট কর এই গুড় দিয়া খাইব। ইহাতে তাহার স্ত্রী কহিল বটে পিটা করা বুঝি বড় সোজা জাননী পিটা আঠা যেমন আঠা লাগিলে শীঘ্র ছাড়ে না তেমনি পিটার লেটা বড় লেট শীঘ্র ছাড়ে না কখনত রাধিয়া খাও নাই আর লোকদের মাউগের মত মাউগ পাইয়া থাকিতে তবে জানিতে। ইহা শুনিয়া বিশ্ববঞ্চক কহিল তবে কি আজ খাওয়া হবে না ক্ষুধায় কি মরিব তৎপত্নী কহিল মরুক ম্যানে আজি কি পিটা না থাইলেই নয় দেখদেখি হাড়ী কুঁড়ি ক্ষুদ কুঁড়া যদি কিছু থাকে। হাহা কহিয়া ঘর হৈতে ক্ষুদ কুঁড়া আনিয়া বাটিতে বসিয়া কহিল শিলটা ভাল বটে নোড়াটা যা ইচ্ছা তা এতে কি চিকণ বাট হয় মরুক যেমন হউক বাটি ত। ইহা কহিয়া ক্ষুদ কুঁড়া বাটিয়া কহিল বাটত এক প্রকার হইল আলুণি পিটা খাইবান লুণ তেল আনিতে হইবে। গতিক্রিয়ার এই কথা শুনিয়া বিশ্ববঞ্চক কহিল ওরে বাছ ঠক তৈল লবণ কোথা হৈতে গোছে গাছে কিছু আন। ইহ শুনিয়া ঠক নামে তাহার পুত্র কোন পরশীর এক ছালিয়াকে আয়