পাতা:বত্রিশ সিংহাসন - নীলমণি বসাক.pdf/৪২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

৩৬

বত্রিশ সিংহাসন

করিলেন যে, এই দুই বীরকে আমাকে দেউন। দেবী তৎক্ষণাৎ তাহাদিগকে দিলেন। পরে রাজা তাহা দিগকে কহিলেন, আমি যখন যে স্থানে তােমাদিগকে স্মরণ করিব তৎক্ষণাৎ তােমরা তথায় উপস্থিত হইও॥ তাল বেতাল কহিল যে আজ্ঞা মহারাজ, আমরা তৎক্ষণাৎ উপস্থিত হইব। তদনন্তর রাজা। গৃহে প্রত্যাগমন করিলেন।

 চিত্ররেখা বলিল রাজা বিক্রমাদিত্যের এই রূপ সাহস ও এইরূপ কর্ম্ম ছিল, তাল বেতাল উভয়ে তাহার। আজ্ঞাকারী ছিল, এবং রাজা তাহাদিগকে যখন যেখানে স্মরণ করিতেন তখনি সেইখানে তাহারা উপস্থিত হইত। হে ভােজরাজ তুমি কদাচিৎ তাহার তুল্য নহ। যদি কোন ব্যক্তি তাহার ন্যায় কর্ম্ম করে তবেই সে সিংহাসনারূঢ় হইতে পারে। তুমি বলের অহঙ্কার করিওনা, তােমার তুল্য পৃথিবীতে কোটি কোটি মনুষ্য আছে।

 এই কথা কহিতে কহিতে সে দিবস গত হইল। অতএব সে দিবসেও সিংহাসনােপবেশন করা হইল না। পর দিবস ভােজরাজ পুনর্ব্বার সিংহাসনারােহণার্থ পদ প্রসারণ করিলে

রবিবামা তৃতীয় পুত্তলিকা

বলিল মহারাজ এই সিংহাসনােপবেশন করা তােমার উচিত নহে। তুমি প্রথমতঃ আমার স্থানে রাজা বিক্রমাদিত্যের এক গুণের কথা শ্রবণ কর।