পাতা:বত্রিশ সিংহাসন - নীলমণি বসাক.pdf/৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

বত্রিশ সিংহাসন।

উপক্রমণিকা।

উজ্জয়িনী নগরে ভোজ নামে অতুল ঐশ্বর্য্য শালী অত্যন্ত পরাক্রান্ত এক রাজা ছিলেন। পরমেশ্বর তাহাকে এমত রূপ লাবণ্য সম্পন্ন ও কান্তিপুঞ্জ পরিপূর্ণ করিয়া ছিলেন যে তাহাকে দেখিয়া পূর্ণ চন্দ্রও আপনাকে হীন-কান্তি বিবেচনা করিয়া লজ্জিত হইতেন। ভোজরাজ অতি- শয় বিদ্বান ও বুদ্ধিমান ছিলেন এবং এমত প্রতাপান্বিত ছিলেন যে তাহার রাজ্যে ব্যাঘ্র ও ছাগ এক ঘাটে জল পান করিত। তাহার অধিকারে যথার্থ সদ্বিচার ও ন্যায়াচার ছিল, তাহাতে কেহ কাহার প্রতি অত্যাচার করিতে পারিত না। এই নিমিত্তই রাজধানী এমত জনাকীর্ণ ছিল যে তিলা মাত্র স্থান শূন্য ছিল না, তাবৎ নগর অতি অপূর্ব্ব অট্টালিকাতে সুশোভিত ছিল। পথ ঘাট সকল এমত সুন্দর ও সুশৃঙ্খলাবদ্ধ ছিল যে ঐ নগরকে পাশার ছক বলিয়া ব্যাখ্যা করা যাইতে পারে। এবং সমস্ত রাজ- পথের প্রান্তে জলপ্রণালী থাকাতে প্রজাগণের জলকষ্ট মাত্র ছিল না। প্রজারা সকলে ঐ রাজধানীতে, নানা প্রকার বাণিজ্য ব্যবসায় করিত, তাহাদের পণ্যবীথিকা