পাতা:বরেন্দ্র রন্ধন.djvu/১৯৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


›ማ¢ করেও রন্ধন । বাট ও একটু চিনি দাও । পরে পিঠাগী দিয়া আঁটিয়া থকৃথকে করিয়া। নামাও । ঘি ও গরমমশল্পা বাট মিশাও । ডুমুরের কালিয়া এই ভাবে রাধিবে। ২০৯ । মোচার কালিয়া মোচা অপেক্ষাকৃত ছোট ছোট করিয়া কুট । ভাপ দিয়া জল গালিয়া ফেলিয়া লও , আলু ছোট ছোট করিয়া কুটিয়া কাইয়া রাখ। বুট ভিজাইয়া রাখ। ইচড়ের স্তায় কালিয়া রাধ। বুটের পরিবর্তে মটর ডালের চাপড়ি ভাজি, নারিকেল কুড়া এবং ছোট চিঙড়ী মাছদি মিশাইতে পার। ২১০ । বেগুণের গলা কালিয়া উত্তম লাফ বেগুণ পোড়াইয়া বেশ করিয়া ছানিয়া লণ্ড । স্কৃতে বা তৈলে জিরা, তেজপতি, লঙ্কা গরম মশল্পী ও হিঙ বা পেয়াজ, ফোড়ন দিয়া বেগুণ ছাড় । আংসাও । জলে মুণ, হলুদ ও বাটা ঝাল গুলিয়া ঢালিয়া দাও । জল শুকাইলে অল্প পিঠালী দিয়া নাড়িয়া চড়িয়া আঁটিয়া নামাও । একটু ঘৃত, ( বা তৈল ), আদা বাট, রক্তন বাট এবং গরম মশল্প বাট মিশাইতে পার। ২১১ । ছানার কালিয়া ছানা চিপিয়া জল বাহির করিয়া ফেল। ডুম ডুমা করিয়া কাট। বৃতে বাদামি রংএ কষাইয়া রাখ। আলু ডুম ডুমা করিয়া অথবা দুই ফাক করিয়া কুটিয়া কষাইয়া রাখ। স্বতে জিরা, তেজপাত, লঙ্কা ও গরম মশল্প ফোড়ন দিয়া লঙ্কা বাট, ধনিয়া বাট ছাড় । আংসাও । সুগন্ধ বাহির হইলে মুণ হলুদ সহ জল দাও । ফুটিলে কষান ছানা ও আলু ছাড়। সিদ্ধ হইলে জিরা মরিচ বাটা, তেজপাত বাট ও চিনি মিশাও । অতঃপর পিঠালী দিয়া ঝালরস ঘন করিয়া নামও। বি ও গরম মশল্প বাটা, (আদা বাটা) মিশাও। ঝুনা নারিকেলের কালিয়া এই প্রকারে রাধিবে।