পাতা:বরেন্দ্র রন্ধন.djvu/২৫৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুর্দশ অধ্যায়— আচার ও কাল্পন্ধি। ২৩৭ ইহ দেওয়ায় সরিষা কুটিবার সময় কামুদি বাহাতে দীর্ঘকাল স্থায়ী হয় তাহা কামনা করিয়া বিবিধ ছন্দে স্তুতী-মন্ত্র পাঠ করা হইয়া থাকে। سير সরিষা কুটা শেষ হইলে তাহ স্থপরিচ্ছন্ন চালুনীতে ( আটা-চালায় ) ছাকিয় লও। “ফাকী যাহা বাহির হইবে তাহা লইয়া ঐ পাঁচ হাঁড়িতে বিভক্ত স্বসিদ্ধ জলে ক্রমে ঢাল এবং বাশের তলাশীর’ ( বাতা ) দ্বারা নাড়িয়া নাড়িয়া মিশাও। এইরূপে ক্রমে সমস্ত সরিষা গুড়ার “ফাক্ট টুকু ঐ জলের সহিত মিশাও। সরিষা গুড়া মিশান পর জল ঠাণ্ড হইলে হাড়ীর মুখে সরা চাপা দিবে। ( ) ^ 4, { এই সরিষা গোলা যেন বিশেষ গাঢ় না হয়—তলাশীর গয়ে জড়াইয়া না যায় এমত তরল মত থাকে, অথচ জলে গোছও না হয়। আন্দাজ মত মুণ ও এক পোয়া টেক হলুদ গুড়া মিশাও । অতঃপর সরিষা গোলাকে সরিষা গুড়ার মিলিথী’ ও উক্ত কঁাচ আমের কিঞ্চিৎ অংশ দ্বারা ‘সাধ দিয়া’ তাহাতে নিম্নলিখিত ভাজা ঝালের গুড়ী মিশাও। এই ঝাল অথবা বাহকে কল্পদি উঠানের পরিভাষায় বার-সজ” কহে তাহ লইয়া কাট-খোলায় ভাজ। ঢেঁকিতে কুটিয়া গুড়া কর। চালুনীতে ছাক । ফকী যাহা বাহির হইবে লইয়া সরিষা গোলার সহিত মিশাও। মিশ্রন কালে তলাশী দ্বারা নাড়িয়া নাড়িয়া উত্তমরূপে মিশাইবে। ঝালের আন্দাজ কাস্বন্দি চাথিয়া স্থির করিবে । অতঃপর পূৰ্ব্বোক্ত পাঁচটি কাচা আমের সহিত আরও কিছু কাচা আম” ছুলিয়া কাটিয়া কুঞাঁফেলিয়া লও। টেকতে অল্প কুটিয়া থেখলাইয়া কাল্পদিতে মিশও। এরূপ আন্দাজে আম মিশাইবে বাহাতে কাদির স্বাদ দাম হয়। এইবারে আম বা ঝাল-কামুন্দি প্রস্তুত সমাধা হইল। এক্ষণে এই কান্থনি কয়েক দিবস ধরিয়া রৌদ্র-পক করিয়া খাও। বিশেষ স্বচীত সহকারে *ब्रिम्हप्न दक घट्द्र कांशमि ॐाहेब ब्रांषिदष, उरवहे जानकनि अदिइन्छ