পাতা:বরেন্দ্র রন্ধন.djvu/৪৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দ্বিতীয় অধ্যায়—সিদ্ধ। 는 AeAA ASASASAS SSAS জলে সিদ্ধ কর। সুসিদ্ধ হইলে ছাকিয়া জলটুকু লও। ইহাই হইল আবযুষের জল । এক্ষণে আরও আনারস খও লইয়া ঘৃতে ভাজিয়া রাখ । চাউল ধুইয়া পরিষ্কার করিয়া শুকাইয়া লও, তাহাতে জাফরান মাখিয়া স্কৃতে ভাজ । কিছু জায়ফল ও গরমমশল্পার গুড়া ও বাদাম পেস্তার কুচা ও কিসমিস মিশাও । হাড়িতে খানকত তেজপাত সাজাও—তেজপাতের উপর ক্রমে ঐ চাউল ও আনারস খণ্ড পরলে পরলে সাজাও । আখনির জল ঢালিয়া দাও । সিদ্ধ হইলে উনানের উপর হইতে সরাইয়া উনানের এক পার্থে অল্প আঁচে দমে বসাইয়া রাখ। স্বসিদ্ধ হইয়া জল মরিয়া গেলে নামাও । ইহার সহিত স্কৃতে ভজ মোয়াক্ষীরের গুড়া মিশাইলে স্বাদ উৎকৃষ্ট হয় । কিছু গোলাপ জল উপরে ছড়াইয়া দিতে পার । so আপেল, থোবানি, আলুবোখার, পিচফল, আঙ্গুর প্রভৃতির দ্বায় - এইরূপে পোলাও রাধিবে। কমলু লেবুর পোলাও রাধিতে হইলে অৰ্দ্ধ সিদ্ধ পোলাওয়ে কমলা লেবুর রস চিপিয়া মিশাইতে হইবে এবং কমলা লেবুর কোয়া চাউলের সহিত একত্রে হাড়িতে সাজাইয় দিতে হইবে । আখনির জলে কমলা লেবু না দিয়া তাহার শুষ্ক খোসা দিয়া সুগন্ধ করা যাইতে পারে । বাদামের পোলাওয়ে বাদাম কুচি কিছু বেশী করিয়া মিশাইতে হইবে এবং বাদাম বাটিয়া অৰ্দ্ধ সিদ্ধ পোলায়ের সহিত মিশাইতে হইবে । নারিকেলের পোলাওয়ে নারিকেলের দুগ্ধ এবং নারিকেল-কুড়া মিহি করিয়া বাটিয়া মিশাইতে হইবে । দহির পোলোওয়ে দহি মিশাইবে । গোলাপী পোলাওয়ে গুলকন দিয়া আখনির জল প্রস্তুত করিবে এবং পরিশেষে কিছু গোলাপ জল বা ঈষৎ গোলাপী আতর মিশাইয়া সুগন্ধী করবে। অপরাপর মিষ্ট পোলাওয়েও ইচ্ছা করিলে গোলাপ জল বা ঈষৎ গোলাপী আতর মিশাইতে পার। -