পাতা:বরেন্দ্র রন্ধন.djvu/৫৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


U)ు বরেন্দ্র রন্ধন । ৪৬। খেসারীর শাক ভাজি খেসারী শাকের সহিত উত্তম কচি বেগুণ ডুম ডুমা করিয়া কুটিয়া মিশাইয়া নসনসে করিয়া ভাজিতে হয়। খেসারী শাক অন্নস্বাদ বিশিষ্ট সুতরাং ভাপ দিয়া জল চিপিয়া ফেলিয়া লইবে । তৈলে কাচা লঙ্কা ফোড়ন দিয়া শাক ও বেগুণ ছাড়। আংসাও । মুণ হলুদ ও একটু মিষ্ট দাও । নাড়িয়া চড়িয় বেশ নসনসে গোছ করিয়া নামাও । ৪৭। পাটের শাক ভাজি n পাটের শাক ঘুতে মুচমুচে করিয়া একটু মুণ সহ ভাজিৰে । ৪৮ । মেথি শাক ভাজি النا শাক বাছিয়া লও। বেগুণ ডুম ডুমা করিয়া কুটিয়া লও। তৈলে কাচা বা শুক্ল লঙ্কা ও মেথি ফোড়ন দিয়া শাক বেগুণ ছাড় । মুণ হলুদ দিয়া নাড়িয়া চড়িয়া ঢাকিয় দাও । প্রয়োজন হইলে একটু জল দিবে। গিমা ও ব্রাহ্মী শাক এই প্রকারে ভাজিবে । মেথি শাক পাৎল বুটের বেসম গোলায় বা মটর ডাইলথাটার গোলায় ডুবাইয়া ভাজিলে সুন্দর লাগে। ৪৯। বিলাতী কুমড়ার শাক ভাজি বিলাতী কুমড়ার জালি পাতা ও ডগা লও। তৈলে কাচা বা শুক্লা লঙ্ক ফোড়ন দিয়া শাক ছাড়। মুণ হলুদ দিয়া নাড়িয়া চড়িয়া ঢাকিয়া দাও। আবগুক হইলে একটু জল দিবে। শুকাইয়া আসিলে কাচা লঙ্কা ও সরিষা একত্রে বাটিয়া মিশাও । নাড়িয়া চড়িয়া নামাও । সরিষার ফুল, তারামিরার ফুল, রাইসরিষার শাক, মুলার শাক (মুলার শাক কুচাইয়া লইবে ) বাধা কোবি, ফুলকোরি পাতা (একটু ভাপ দিয় কুচাইম্বা লইবে ) প্রভৃতি এই প্রকারে সরিষা বাট যোগে ভালিবে।