পাতা:বর্ত্তমান বাঙ্গালা সাহিত্যের প্রকৃতি.pdf/১৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


[ s ] প্রকাব একাধিপত্য । প্রাচীন শ্রেণীব লেখক যে একেবাবে নাই তাহা নহে। কিন্তু তাহাবা যেন একপাশ্বে গিয দাড়াইযাছেন এবং অনেক স্থল নব্যদিগের সহিত মিত্ৰত করিয়া নব্যদিগের অনেক বিধিব্যবস্থা গ্রহণ কব শ্রেযঃ জ্ঞান করিতেছেন । ‘বাঙ্গালা ভাষাটা বেওযারিস্ ভাষা”—এই কাবণে এই কথাট এখন অব বড় শুনা যায না । শুনা যায না বটে ৮ কিন্তু বাঙ্গালা লেখা সম্বন্ধে এ কথাটা তখনকার অপেক্ষা এখনই বেশী, খাটে । কাবণ এখনকাব বাঙ্গালায তখনকাব ন্যায বাণকবণ দোষ ত আছেই ; তদ্ব্যতীত অন্ত বকমেব এমন অনেক দোষ দৃষ্ট হষ, যাহা তখনকাব লেখায়, দুষ্ট হইত না অথবা অল্পই দুষ্ট হইত। এই সমস্ত দোষেব মূল মানসিক অসাবতম এবং চবিত্রেব দুর্বলতা । তখনও আমাদেব মানসিক অসাবতা ও চৰিত্রেব দুর্বলতা ছিল, স্থতবাং তখনক বৈ লেখাতেও এই সকল দোষ থাকিত - কিন্তু এখন বোধ হয় আমাদের মানসিক অসারত ও চরিত্রেব দুর্বলতা বাডিযাছে, নছিলে এখনকাব লেখায ঐ সকল দোষ তখনকার অপেক্ষা এতু অধিক দৃষ্ট হয় কেশ স্বাদশানুবাগ, স্থান