পাতা:বর্ত্তমান বাঙ্গালা সাহিত্যের প্রকৃতি.pdf/২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


[ ২১ ] প্লীহট্ৰবাসী উহাতে যাহা বুঝেন আমবা তাহা বুঝিব। না, সম্পূর্ণ বিপবীত বুঝিব। কাবণ কবিতে পার্জামুন’ বলিলে আমরা বুঝি “করিবার ক্ষমত হইত না’, কিন্তু শ্ৰীহট্টবাসী বুঝেন ‘কবিতে পাবিব না’ শ্ৰীহটবাস বলেন “খাইমু’, ‘যাইমু’, ‘দিমু’, ‘আইঐন’ . আমব বলি, খাব, ‘যাব, দিব”,"আন্থন” সামাদিগকে আমাদের নিজেব অপভ্রংশাদির ব্যবহাব কবিতে দেখিয, শ্রীহটবাসীও যদি তাহাব নিজের অপভ্রং'শাদিৰ ব্যবহাব কুবেন, তাহা হইলে তাহার লেখা আমব বুঝিতে পাবিব না। স্থতবাং তাহাব সাহিতা ' আমাদেব সাহিত্য হইতে স্বতন্ত্র হইষ পড়িবে , এইৰূপে বঙ্গেৰ সকল জেলাব লোকে যদি পুস্তকা, দিতে আপন আপন অপভ্রংশীদব প্রযোগ কবে, তাই হুইলে বঙ্গে জেলাবস°খ্যা যত, বাঙ্গণল সাহিতেবে সংখ্যাও প্রাম তত হইবে । অতএব লিখিবাব সময সকলেবই এরূপ অপভ্রংশ ও গ্রাম্যতা পবিত্যাগ কৰা . कडंबा । সাহিত্য সমস্ত সমাজের জন্য, খণ্ড সমাজের জন্য নহে , , সমস্ত জাতিৰ জন্য, স্থান বিশেষেব অধিবাসীৰ জন্য নহে । উহাতে গ্রাম "মৌজা, স্কুহকুমা বা জেলা