পাতা:বর্ত্তমান বাঙ্গালা সাহিত্যের প্রকৃতি.pdf/৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


[ రిట ] (১) আমরা নিরুপায ভাবে ইংরাজের হস্তগত হইয়াছি । .(২) এই উভযেব মধ্যে কেবলমাত্র মাত্রার প্রভেদ বকমের প্রভেদ নয। (৩) তৈত্তিরীয উপনিষদের এই উক্তি ভক্তি প্রধান পৌরাণিক সমযকে আলিঙ্গন করিতেছে। (৪) ঐ যে যুবক ঘোডাষ চড়িযা আসিতেছে উহার প্রতি অঙ্গে উচ্চ কুলশীল নিখাত । (৫) বুদ্ধি ভোজ্য লাভ করে । (৬) অভিমানী, কাপুরুষেব মত অন্ধকারে আঘাত" কবিতে জানে না । (৭) পৃথিবীতে পৃথিবী প্রবল হইবারই কথা, স্বর্গ সৰ্ব্বদা কেমন করিয়া দেখিতে পাওয়া বাইবে ? (৮) কাজের স্থবিধার জন্য ভাব গৌরবকে বলিদান দিতে ভাহাদের অনেকে কুষ্ঠিত হন না । (৯) উপকারের নামে যাহারা অপকার ঘটায়, তাহারা ধৰ্ম্মনীতির অভিসম্পাত । (১০) আমরা এক কালে এত বড় ছিলাম . যে ইউরোপের অত বড় হইবাব* সম্ভাবনা অতি ভগ্নাংশিক ।