পাতা:বর্ত্তমান বাঙ্গালা সাহিত্যের প্রকৃতি.pdf/৫১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বৃশ্চিক দষ্টের ন্যায তাহারা ছট ফট্‌ করিযা বুেড়ানু,. মনে, করেন—লোকে আমাদিগকে কি মূখ, কি. অপদার্থ ই ভাবিতেছে, এমন লজ্জার কথা আর কি হইতে পারে ? তাহারা যথার্থই বোগপ্রস্ত । তাহাদিগের ইংৰাজী বচনবে অভিমানাদি দেখিলে দুঃখ হয়, এবং সেই অভিমান জনিতু স্পর্দাদিৰ আতিশয্য দেখিলে হাস্য সম্ববণ করা কঠিন ইইয৷ পড়ে। বিদেশীয ভাষায রচনা নৈপুন্য লাভ কবা মন্দ, এমন কথা বলি না । লাভ কবা হয; ভালই , কিন্তু লাভ কবীকে চতুৰ্ব্বৰ্গ লাভেব তুল্য জ্ঞান করিষা, তদার্থ প্রাণপাত কবা, বিশেষ বুদ্ধিমত্তাব ও স্বদেশ প্রিযতার কাৰ্য্য বলিযা বিবেচনা কব যাইতে পাবে না অনেক ইংরাজ সংস্কৃত শিক্ষা কবেন, সংস্কৃতে পণ্ডিত্যও লাভ কবেন । কিন্তু তাহাদিগকে সংস্কৃতে উৎকৃষ্ট রচনা কুরিবাব প্রযাসী দেখা যায না । সম্প্রতি কলি কাতার একটা সভায সংস্কৃতে একটা বক্তত প্রদত্ত হইযাছিল। সভাপতি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যা •লষের প্রসিদ্ধ সংস্কৃতাধ্যাপক বেগুল মহোদয রক্ত তান্তে বলিযাছিলেন-আমি সংস্কৃতে বক্ততা কবিব ন। সংস্কৃতে কখনই ভাল বক্তত কবিতে পারি না।’