পাতা:বর্ত্তমান বাঙ্গালা সাহিত্যের প্রকৃতি.pdf/৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

[ २ ] যাহার অন্যকে কিছুই বলিবার ইচ্ছা যা অভিপ্রায় নাই সে লিখিবে কেন ? সে মনেব কথা মনেই ' র।নিয়া দিবে। মনের কথা বিস্মৃত হইবাব ভযে যদিও লেখে, তাহ হইলে যাহা লিখিবে তাহ আপনার কাছেই বাখিযা দিবে, অন্যকে পড়িতে দিবে না । সে যদি পুস্তকাদি লিখিযা বিক্রয বা বিতৰণ করে, তাহা হইলে বুঝিতে হইবে যে, তাহাব অভিপ্রায, অন্যে তাহাব পুস্তকাদি পাঠ কবে । দার্শনিক বল, কবি বল, ইতিহাসবেত্ত বল, বৈজ্ঞানিক বল, সকলেবই সম্বন্ধে এই কথা বলিতে পাবা যায । কিন্তু অপবে যাহা পডিবে, তাহাতে এমন কিছুই থাকা উচিত নহে, যদ্বাবা অপবেব অনিষ্ট সাধিত হইতে পাবে । দ্য যতঃ ও ধৰ্ম্মতঃ আপলেব অনিষ্ট কবিবাব অধিকাৰ কাহাবই নাই—দার্শনিক, বৈজ্ঞনিক, ঐতিহাসিক, কবি, নাটক কবি, উপন্যাসক বি, কাহাবই নাই । অপবকে যদি কিছু পড়িতে দিতে হয, তবে তাই এবপ প্ররতিব হওয়া উচিত ও আবশ্যক যে, তাহ পড়িয অপবেক অপকাব না হইয উপকাবই হয। অতএব অপবে যাহা পড়িবে, অপরের হিতাহিতেব দিকে দৃষ্টি রাখিযা তাহা লেখা