পাতা:বাংলাদেশ কোড ভলিউম ২৯.djvu/২৭২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ধারা ৪০, ৪১, ও ৪২ এর অধীন আদেশ দানের সুযোগ দেওয়া o ՀԳՀ রাজশাহী মহানগরী পুলিশ আইন, ১৯৯২ ৪৪। (১) কোন ব্যক্তি সম্পর্কে ধারা ৪০, ৪১ বা ৪২ এর অধীন আদেশ জারীর পূর্বে পুলিশ কমিশনার ঐ ব্যক্তিকে তাহার বিরুদ্ধে আনীত মৌলিক অভিযোগ এবং তজ্জন্য তাহার সম্পর্কে প্রস্তাবিত আদেশ জারীর বিষয়টি তাহাকে লিখিতভাবে জানাইবেন এবং এতদসম্পর্কে তাহাকে কৈফিয়ত দেওয়ার যুক্তিযুক্ত সুযোগ দান করিবেন। (২) উপ-ধারা (১) এউতি বান্তি দিনে বাকী আল হক করিবেন, যদি না তিনি মনে করেন যে, কেবলমাত্র বিরক্ত ও বিলম্ব করার উদ্দেশ্যেই অনুরূপ দরখাস্ত করা হইয়াছে। ് (৩) অনুরূপ ব্যক্তি তাহার আইনজীবীর মাধ্যমে পুলিশ কমিশনার সমীপে হাজির হইয়া বক্তব্য পেশের ও তৎকর্তৃক উপস্থাপিত সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ দেওয়ার অধিকার থাকিবে । o (৪) অনুরূপ ব্যক্তির উপস্থিতি নিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে, পুলিশ কমিশনার তদন্ত চলাকালে অনুরূপ ব্যক্তিকে তৎসমীপে উপস্থিত হইয়া মুচলেকা প্রদানে নির্দেশ দিতে পারেন এবং অনুরূপ, মুচলেকা জামানতসহ বা জামানত ছাড়া হইতে পারে। 8 CN (৫) উপ-ধারা (৪) এর অধীন মুচলেক প্রদানে অনুরূপ ব্যক্তি বাৰ্থ হইলে অথবা তদন্ত চলাকালে পুলিশ কমিশনার সমীপে উপস্থিত হইতে ব্যর্থ হইলে, জীৱী করবেন। ১ - o ৪৫। (১) ধারা ৪০, ৪১ বা ৪২ এর অধীন আদেশ জারীর ফলে কোন মধ্যে সরকারের নিকট আপীল করিতে পারিবেন। (২) এই ধারার অধীন আপীল একটি স্মারকলিপির মাধ্যমে দায়ের করিতে হইবে এবং উহার সহিত আপীল করার কারণ উল্লেখসহ সংশ্লিষ্ট আদেশের একটি সত্যায়িত কপি দাখিল করিতে হইবে। (৩) অনুরূপ আপীল আবেদন প্রাপ্তির পর সরকার সংশ্লিষ্ট আপীলকারীকে ব্যক্তিগতভাবে অথবা আইনজীবীর মারফত শুনানীর সুযোগ দিবেন এবং অধিকতর তদন্ত করা হইলে সেই তদন্তের পর যে আদেশটির বিরুদ্ধে আপীল করা হইয়াছে সে আদেশটি বহাল রাখিতে, সংশোধন করিতে বা বাতিল করিতে পারেন: 。