পাতা:বাংলাদেশ কোড ভলিউম ২৯.djvu/৫৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মূল্য সংযোজন কর আইন, よ。ああ》 @や ৫৩। ধারা ৫২ এর অধীন কোন ব্যক্তিকে থানার ভারপ্রাপ্ত যে কর্মকর্তার থানার ভারপ্রাপ্ত নিকট প্রেরণ করা হয় তিনি তাহাকে এখতিয়ারসম্পন্ন ম্যাজিস্ট্রেট এর নিকট "শ" হাজির হওয়ার জন্য জামিন দান করিবেন অথবা জামিন নামঞ্জুর করা হইলে তাহাকে উক্ত ম্যাজিষ্ট্রেট এর হেফাজতে প্রেরণ করিবেন। ৫৪। (১) ধারা ৫২ এর অধীন কোন ব্যক্তিকে কোন মূল্য সংযোজন কর སྨ་ཨྰཿཧྰུཾ་སྭཱ་ཧཱ་གིས། Q, কর্মকর্তার নিকট প্রেরণ করা হইলে উক্ত কর্মকর্তা তাহার বিরুদ্ধে আনীত বিরুদ্ধে মূল্য No অভিযোগের তদন্ত শুরু করিবেন। সংযোজনকর ১ (২) এই উদ্দেশ্যে মূল্য সংযোজন কর কর্মকর্তা, কোন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পদ্ধতি O বিনা পরওয়ানায় গ্রেফতারযোগ্য কোন অপরাধের তদন্তের ক্ষেত্রে Code of <o Criminal Procedure এর অধীন যে ক্ষমতা প্রয়োগ করিতে পারেন এবং & বিধানসমূহের আওতায় থাকেন সেই একই ক্ষমতা প্রয়োগ করিতে পরিবেন এবং একই বিধানসমূহের আওতাধীন থাকিবেন; o R o (ক) যদি মূল্য সংযোজন কর কর্মকর্তা এইরুপ অভিমত পোষণ করেন যে, অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে যথেষ্ট সাক্ষ্য রহিয়াছে বা সন্দেহের যুক্তিসংগত কারণ রহিয়াছে তাহা হইলে তিনি তাহাকে এখতিয়ারসম্পন্ন ম্যাজিষ্ট্রেটের সম্মুখে হাজির হওয়ার জন্য জামিন মঞ্চ কলেজৰ ফেলে দল o (*) যদি মূল্য সংযোজন কর কর্মকর্তার নিকট প্রতীয়মান হয় যে, অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে যথেষ্ট সাক্ষ্য নাই বা সন্দেহের যুক্তিসংগত কারণ নাই তাহা হইলে তিনি তাহার নির্দেশ মোতাবেক জামানত সহকারে বা জামানত ব্যতীত একটি মুচলেকা প্রদান সাপেক্ষে, এখতিয়ারসম্পন্ন ম্যাজিষ্ট্রেট যদি তলব করেন, এবং যখন তলব করেন তখন, তাহার সম্মুখে হাজির হওয়ার জন্য উক্ত ব্যক্তিকে জামিনে মুক্তি দিবেন এবং উক্ত মামলার পূর্ণ বিবরণী সম্বলিত একটি প্রতিবেদন তাহার উধ্বতন তবে শর্ত থাকে যে, করকিল-কলে। (G (১) যে ক্ষেত্রে কোন ব্যক্তির পণ্য সরবরাহ বা প্রদত্ত সেবার উপর শঅনাদায়ী ও কম প্রদেয় মূল্য সংযোজন কর বা, ক্ষেত্রমত, মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুষ্ক :"; করসহ میر میر কোন কারণবশতঃ ধার্য বা পরিশোধ করা হয় নাই বা কম ধার্য বা কম অন্যান্য শুল্ক ও \ কর] আদায়] -് উপ-ধারা (১) অর্থ আইন, ২০০১ (২০০১ সনের ৩০ নং আইন) এর ৮০ ধারাবলে প্রতিস্থাপিত। * উপান্ডুটীকা অর্থ আইন, ২০০৩ (২০০৩ সনের ১৭ নং আইন) এর ৪৫ ধারাবলে প্রতিস্থাপিত।

  • “শুল্ক ও কর” শব্দগুলি “শুল্ক-কর” শব্দগুলির পরিবর্তে অর্থ আইন, ২০০৬ (২০০৬ সনের ২২ নং আইন) এর ৪১

ধারাবলে প্রতিস্থাপিত।