পাতা:বাংলার পাখি - জগদানন্দ রায়.djvu/২০২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বাংলার পাখী। እbሦእ ့်စုံကြi, লোটন, লাক্কা’ গেরোবাজ, পরপাও-এই রকম কত নামের কত পায়রা আমরা বাজারে বিক্রয় হইতে দেখিতে পাই । ཚef সবই ঘরাও পাখী। মধ্য-এশিয়া ও চীন দেশের এক রকম গােলা পায়রাই ইহাদের পূর্বপুরুষ মানুষ মত শত বৎসর চেষ্টা করিয়া ঐ বুনো পায়রা হইতে কুড়ি-পঁচিশ উপ-জাতির ঘরাও পায়রা উৎপন্ন ‘কািরয়াছে। এখন যদি তোমাদের পোষা গেধোবাজ বা লক্কাকে জঙ্গলে ছাড়িয়া দিয়া আইস, তাহা হইলে বোধ করি তাহারা দু’দিনের জন্যও আত্মরক্ষা করিয়া সেখানে বাঁচিয়া থাকিতে পরিবে না। পূর্ব-পুরুষ গোলা পায়রাদের উড়িবার প্ৰণালী, বাসা তৈয়ারির কৌশল, সকলি তাহারা মানুষের ঘরে থাকিয়া ভুলিয়া গিয়াছে। আজকাল অনেকে যে টকি পাখী পুষিয়া থাকে, চারিশত বৎসর পূর্বে পৃথিবীর লোকে তাহাদের অস্তিত্ব জানিত না। -আমেরিকার মেক্সিকো প্রদেশের এক বুনো পাখীকে ঘরাও করিয়া মানুষ এই কিস্তৃতকিমাকার টার্ক পাখীদের উৎপন্ন করিয়াছে। ইহাদের বুনো পূৰ্বপুরুষদের এখন আর দেখাই যায় না। মাংসের লোভে মানুষগুলি মারিয়া তাহাদিগকে নিঃশেষ করিয়া দিয়াছে।