পাতা:বাংলার ব্রত - অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৪৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

বাংলার ব্ৰত 89. উদয়গিরিশিখরে সুৰ্যোদয়ের আভা লাগল ; উদয়গিরিকে ফুল দিয়ে পুজো করে সকলে। কঁাটার পর্বত। সোনার চুড়া। উদয়গিরি। তোমারে যে পূজলাম সুমঙ্গলে, আসুন তঁরা আপন বাড়ি। বনদেবীর প্রতি সকলে । তোমার হোক সোনার পিাড়ি । সুৰ্যোদয়ের আলোর মধ্যে জোড়া ছত্র মাথায়, দিনরাত্রি শরৎ-বর্ষার দুইও নৌকোয় পা রেখে, সমুদ্রের উপরে ভাদুলির আবির্ভাব। সাগরের গান। সাত-সমুদ্রে বাতাস খেলে, কোন সমুদ্রে ঢেউ তুলে ! বনদেবী সাগরের প্রতি । সাগর । সাগর । বন্দি । Co፲ርቑ | তোমার সঙ্গে সন্ধি । সাগরকে ঘিরিয়া সকলে । ভাই গেছেন বাণিজ্যে, বাপ গেছেন বাণিজ্যে, সোয়ামি গেছেন বাণিজ্যে । ਦ| || द्धि ख्यांन्त्रन उत्रांख्रि, किर्द्ध त्रांजवन च्षांख, ফিরে আসবেন আজ । সকলের নমস্কার। জোড়-জোড়-জোড় সোনার ছত্তর জোড়নৌকায় পা । আসতে-যেতে কুশল করবেন। ভাদুলি মা । छ्ङीब्र पृथ) গ্রামের মধ্যে ভাদুলি-অনুষ্ঠানের তৃতীয় দৃশ্য বা পালা শুরু হল ; ভদ্রের শেষদিন, নতুন শরতের সকাল ঘুমন্ত গ্রামখানির উপরে এসে পড়েছে, মেয়েদের খিড়কির পুকুর কানায় কানায় পরিপূর্ণ, তারই উপরে সোনার রোদ ঝিকমিক করছে, পুকুরে পাড়ে জোড়া তালগাছ। তাতে বাবুইপাখিরা ৰাসা। বাবুইপাখি গাইছে।- f ভাদুলি মায়ে বর দিল । ঘাটে এল সাপ্ত না” ।