পাতা:বাঙ্গলা ব্যাকরণ - লোহারাম শিরোরত্ন.pdf/১৭১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

১৬২

বাঙ্গলা ব্যাকরণ।

শব্দ স্থানে বিকল্পে স হয়। যথা; সমান। রূপ যার, সে সমানরূপ, সরূপ। এইরূপ; সমানবর্ণ, সবর্ণ; সমানধর্ম্ম, সধর্ম্ম; সমানজাতীয়, সজাতীয় ইত্যাদি।

 সমাসের পূর্ব্ব পদ যুষ্মদ্ বা অস্মদ্ শব্দ থাকিলে তাহার স্থানে একবচন স্থলে যথাক্রমে ত্বং ও মৎ হয়। যথা; তোমার কৃত, ত্বৎকৃত; আমার পুত্র, মৎপুত্র; আমাকে দত্ত, মদ্দত্ত ইত্যাদি।

 বিরল প্রচলিত সমাসান্ত প্রত্যয়গুলি। পরিত্যক্ত হইল।

নিম্নলিখিত পদগুলিতে কি কি সমাস আছে, স্থির কর।

 প্রচণ্ডরবিকিরণ, নির্ব্বাতপ্রদেশ, তদাগমন, অনুদিন, পদ্মাক্ষ, বিকসিতকমলাবলীসুশোভিতসরোবর, বাষ‍্পাকুললোচন, শোভাকৃষ্ট, যশঃপ্রকাশিতদিঙ্মণ্ডল, নক্ষত্রচন্দ্রাতপশোভিত, আত্মপ্রতিরূপ, স্কন্ধারূঢ়, তরুণরুণচ্ছবি, শীতভীতনর, অঞ্জনশূন্য, লতাপ্রবাল, স্বর্ণময়সিংহাসনস্থ, দেবদত্ত, প্রভাবভীত, স্বধনদান, ত্রিযুগ, বিনিদ্র, দেবসেবাপরায়ণ,