পাতা:বাঙ্গালা ভাষার অভিধান (প্রথম সংস্করণ).djvu/১৮৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


श्रांछ “সতী কুলবতী, তুয় যে খেয়াতি, আছয় গোকুল পুরে।” —চণ্ডীদাস । আছরম—আশ্রম ত্রঃ । আছিল [ প্ৰা—বাং । ব্ৰজ—অছল ; তাহ হইতে বাং বৈঃ সাঃ—আছল। আছিল জ: ] ক্রি, ছিল। প্র—“জতই আছল মোর হৃদয়ক সাধ ।” –বিদ্যাপতি ঠাকুর কী পদাবলী । আছা | সং—অস্ ( হওয়া, থাকা ) গ্রা, হিন্দীতে হয়, আছে' অর্থে অবিকল “অদৃ শব্দের প্রয়োগ আছে। ম:—অসে, আসতো । পৃথিবীর প্রায় সকল আৰ্য ভাষাতেই অসূধাতুজ হওয়া বা থাকা-অৰ্থক শব্দ পাওয়া যায় । তুল—সং—অস্তি ঃ জুেন –অতি osti ; গ্রীesti ; aUi—est ; &p%—ist ; ফ্ৰা—অস্ত, : ইং—is এই অস্ এর স স্থানে চ ছ জ হ হইয়া ভিন্ন ভিন্ন প্রাদেশিক উচ্চারণের স্মৃষ্টি করিয়াছে। তুল—হি—আছ না=বিদ্যমান থাকা, “আছলোঁ মন বৈরাগী”—কবীর । “আছহি”—মহম্মদজায়লী । “আছত” তুলসী ইত্যাদি—আসা আসে ; ওড়ি—আছি ; ব্রজ —অছি ; ম:—আহ ; আসি ; বাং—আচে, আছে, আছহ ইত্যাদি । বাং—এই ছ' হিন্দীর মধ্য দিয়াই আসিয়াছে বলিয়া বোধ হয় ; কারণ প্রাচীন হিন্দীতে ইহার ভূরি ব্যবহার আছে এবং অছন ধাতুর রূপান্তর গুলিও অবিকল বাঙ্গালায় আসিয়াছে — যথা—প্ৰা,হি— অছলোঁ ; প্র],—বাং—আছিলো, আছলু, আছিনু ব্ৰজ-আছলু ; আছল (বি, প) : প্রা. বাং—আছল, আধু-আছিল। তুল—হি—অছলো, “কহ কবীর কছু আছলো ন জহিয়া"—কবীর (অর্থাৎ কবীর বলে জগতে কিছুই ছিল না) ইহা হইতে মৈ ও ব্রজ— *আছল" । প্র—“সৈসব আছল সে ডরে পলাএল ৷”—বিদ্যাপতি । প্রা, বাং পদ্যে —আছন্তি, আছন্ত, আছেন্ত, আছেত ; সং—অসস্তি ( সস্তি ) এবং থাকিতে, থাকা সত্ত্বে এই অর্থে বাং—আছিতে, আছইতের অনুরূপ প্রা, হি—আছত, অছিত জঃ (হিন্দী শব্দ সাগর । "ছতই আছত সমান”— বিহারীলাল) । উ, পু— আছি। ম, পু—আছ ( সমানার্থে), আছেন ( সন্ত্রমার্থে), আছিস অবজ্ঞার্থে) । প্র, পু-আছে (সমান বা তুচ্ছার্থে), আছেন (সন্ত্রমার্থে), বৰ্ত্ত—আছে, আছিএ, আছিয়ে। ভূত—আছিল, ছিল । পদ্যে, আছিমু, ছিনু : আছিলাম, আছিলাঙ, এঃ, (প্রী, বৈ, সা, প্রা, ৰাং, অপ্র) । ভবি—আছিত (অপ্র ) । অস-ক্রি—আছিতে, আছইতে (অপ্র ) । অনুজ্ঞা—আছুক । প্রধান প্রধান রূপান্তরগুলি স্ব স্ব স্থানে দ্রষ্টব্য ] ক্রি, থাকা : বিদ্যমান থাকা । অস্তিত্বে বজায় থাকা । ২ । বাচিয়া থাকা ; >(t8 জীবিত থাকা । ৩ । উপস্থিত থাকা ; হাজির থাকা । ৪ । বাস করা : অবস্থিতি করা : ৫ । সহায়স্বরূপ থাকা । [ দ্রঃ—গ্রাম্য হিন্দীতে বিশেষতঃ কথ্য পাহাড়ী হিন্দীতে আছে অর্থে " "ছে এবং ছো' র ব্যবহার আছে ] । - আছাড় (ড়) { হি–পছাড়, । প্রা. বাং— নাচাড়। আছড়া ত্রঃ ] বি, উৎপতন ; পতন । ২ । পতনজনিত আঘাত । ক্রি, অtছড়ান (নো ) {উ, পু, আছড়াই। ጙ 었 আছড়াও : আছড়ান ; আছড়া | &i, পু, আছড়ায় । অস-ক্রি, আছড়াইতে ; আছড়াইয়া, আছড়ে ( গ্রা ) ] ক্রি, আছাড় দেওয়া ; ধরিয়া উদ্ধে উঠাইয়াই বেগে ভূতলে নিক্ষেপ করা । আছড়য়ে, অীছড়িয়েসংক্ষেপে আছাড়ে—জাপটিয়া ধরিয়া মাটিতে ফেলিয়া দেয় । প্র—“কে কারে আছাড়ে কে কারে পাছাড়ে কে মানে কাহার বোল ।”—অন্নদামঙ্গল । আছাড়িয়া, অtছড়িয়া, অছিড়ি—আছাড় মারিয়া ; উদ্ধ নিক্ষেপ দ্বারা । এই অর্থে—প্রা-বাং, “নাচেড়ে” এই গ্রাম্য শব্দের প্রয়োগ দেখা যায়। প্র-“চরণ নাচেড়ে ভঙ্গ দুর্জয় শকট” —শীতলামঙ্গল ( নিত্যানন্দ ) ; আছাড়কাছাড় (ড় ড়, ) বি, হস্তপদ বিক্ষেপপূর্বক বিলুণ্ঠন ও কাতরানি : অত্যন্ত শোকব্যঞ্জক বিলাপের সহিত গড়াগড়ি । প্র—ছেলেটি অভিমানে ও দুঃখে আছাড়কাছাড় করিয়া কাদিতে লাগিল। আছাড় পিছাড় করা (চ, গ্রা, আচাড়, পিছেড়)— হাত-পা আছড়ান : ছট্‌ফট্‌ করা । আছাড় খাওয়া—পদস্থলিত হইয়া পতিত হওয়া ; পা পিছলাইয়া পড়িয়া যাওয়া । আছাড় মার, আছাড় দেওয়া-আছড়ান। অtছাড় খাইয়া পড়া—শোকাদি বশত: ইচ্ছাপূর্বক সাষ্টাঙ্গে ভূপতিত হওয়া । আছালতন [ আ, আসান্তন ( আসল হওয়া) শব্দের বিকৃত উচ্চারণ (স=ছ) স্বয়ং হাজির হওয়া ] বিণ. যাহা মার্কতী নহে ; স্বয়ং : personal. প্র—“বাদীকে আছাক্তন জবাব দিতে হইবে, উকিলের মার্কং দিলে চলিবেন!” অর্থাৎ স্বয়ং হাজির হইয়া নিজমুখে বলিতে হইবে । অাছি (আছি) { সং—অস্মি শব্দজ, প্রাকৃ-অসি হইতে ] ক্রি, হই ; বিদ্যমান আছি । প্র— “পড়ির চাৰ্ব্বাকশাস্ত্র স্বল্প হইলু আর । আছি কি না আছি শেষে জানা হ’ল ভার ।" ২ । অৰস্থিতি করিতেছি ; বাস করিতেছি । প্র— আজ কাল আমি দেশেই আছি । ৩ । থাকি । প্র—আমি কোথায় আছি কোথায় নাই তুমি মিথ্যা খুঁজে বেড়াৰে ? ৪। জীবিত श्रांछू আছি ; বাচিয়া আছি। ৫। উপস্থিত আছি ; হাজির আছি । ৬। সহায় স্বরূপ আছি । প্র—আমি আছি, তোমার ভয় কি ? আছইতে জঃ । আছিতে প্রো, ৰাং । আছইতে দ্রঃ । হিতে— অছতও আছত শব্দের ভুরি ব্যবহার —“আপু আছত জুবরাজ-পদ, রামহি দেউ নরেস”— তুলসী ; “থসম অছত বহু পী পর জায়"— কবীর ; “উনকে আছত আপনে আলস"— স্বরদাস ; “ছত অছত সমান"—বিহারী। হিন্দীতে অছিত শব্দের ব্যবহারও আছে । ইহা হইতেই সম্ভবতঃ ৰাং — আছইতে, ও আছিতে আসিয়া থাকিবে ] ক্রি-বিণ, বিদ্যমান থাকিতে ; বর্তমান থাকিতে । আছিল । সং—আসীৎ পদের প্রাকৃত উচ্চারণ, ত=ল, স=ছ (ভাষাতত্ত্ব) আছ জঃ ] ক্রি, ছিল : বিদ্যমান ছিল : বর্তমান ছিল। প্র—“আছিল রাবণ রাজা ব্ৰহ্মবংশে জন্ম ।”—কাণী মহা, উদ্যোগ। “আছিল বিস্তর ঠাট প্রথম বয়সে। এবে বুড়া তবু কিছু গুড়া আছে শেষে ॥"—ভারতচন্দ্র। (সন্ত্রমার্থে) আছিলেন । প্র—“আছিলেন দুৰ্য্যোধন রণপরিহরি।"—মহা—কাশী-গদা । [আছিল অর্থে ব্রজবুলিতে ও প্রাচীন বাঙ্গালায় ১ম পুরুষে আছল এবং মধ্যম পুরুষে আছিলি (ছিলি, ছিলে শব্দের ব্যবহার পাওয়া যায়) পদ্যে ছিল স্থলে ছলামুরোধে আছিল ও আছিল। অধুনা বিরল। [সং–ভু ও কৃ ধাতুর স্তায় বাঙ্গালায় অতীতকাল বুঝাইতে সকল ক্রিয়াই আছিল (সংক্ষেপে ছিল) ধাতু যোগে নিম্পন্ন হয় ; যথা—সং—কৰ্ত্ত মূ+আসীৎ=বাং —কৰ্ত্তে +আইল=কর্জেছিল (করিতেছিল) —ভাষাতত্ত্ব ত্রঃ ] ২ । উপস্থিত [ মাণিকচাদের গান ] আছিলাম (মৃ) [অস্ ধাতুজ আসমৃ(ত আগম) আসতম=আছলম্=আছিলাম। অস্+লাম্— (ই আগস্) তুল—ব্রজ, অছলিহু=ছিলাম। প্র—“এতদিন অছলিং অপন গেয়ানে”—বি, প, ( গুপ্ত ) ] ক্রি, উ, পু : ছিলাম । [ প্রাবাং আছিলেম, আছিলু ও দেখা যায়। (প্রা, বৈ, সা) আছিলাঙ ও আছিলাঞ । ইহা হি—“অহুলোর অমুকরণে। ব্ৰজ—অছলো। প্র—“একলি আছলে। হম গথইতে হার । সসরি খসল কুচচীর হুমার ॥”—বিদ্যাপতি । , আছুক (আছুৰু) (সং—‘অন্ত' : পালি, প্রাকৃ— আস্থত =বাং—আছুক] ক্রি, থাকুক ; রংক ' ( অবস্থিতিকরণার্ধে) । ২ । থাকুক (তুলনাৰ্থে) প্র—“আছুক বিন্ধিতে কাজ তুলিতে নারিল। হাসিয়া মুশর্ক্স রাজা ধনু কাড়ি নিল ॥”— कjी, भइ-आँ ि।