পাতা:বাঙ্গালা ভাষার অভিধান (প্রথম সংস্করণ).djvu/৪০৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কাড়া (۹۵ (ه কাণ্ড ৪ । কঁড়িান : ধান্তাদি কণ্ডন করাণ । ৫ ৷ (কাঁড়ান্‌) বি, বৃষ্টি বাদল। প্র— "আষাঢ়ে কাড়ান্‌ নামূকে শ্রাবণে কাঁড়ান বানকে।”—থনার বচন । কাড়া-নাকড়া, কাড়া-নাগড়া t হি— নগার, নগাঁড়া=বৃহৎঢঙ্ক] বি, কাড়া ও নাগাড়ার মাঝামাঝি আকারের ঢঙ্কা । প্র— "অমনি কতকগুলি বস্তলোক টিকার ও কাড়ানাগড়া বাজাইয়া গান করিতে লাগিল।" —টেকচাদ । কাণ (ন) (সং–কর্ণ ; প্রাকৃ—ক ; বাং— কাণ, কান। অধুনা ‘ন অধিক চলিত হইয়াছে ] শ্রবণেক্রিয় ; শ্রুতি ; শ্রবণ। প্র—“পুরুষের কাণ কাটে ধরে শক্তি হীরা।” —ভারতচন্দ্র । ২ । মন্ত্রণ । ৩। [ কাণি (নয়ন মুদ্রিত করা)+অ (কর্তৃ—সংজ্ঞার্থে ঘঞ, )] বি, পুং, কাক। ৪ । বিণ. এক চক্ষুহীন ; কাণ । কগণ কথা—কান কথা দ্রঃ । কাণকাটা (ন) [ কাণ (কর্ণশদজ) কাটা ( কৰ্ত্তন শব্দজ) ]বিণ, যে কাণ কাটে ( এতদেশীয় স্ত্রীলোকেরা শিশুদিগকে শান্ত করিবার জন্য কাণ কাটার ভয় দেখাইয় থাকে) : জুজু প্ৰ—“অতএব সন্তানদিগকে ঐ জুজু ঐ কাণ-কাটা বলিয়া ভয় দেখান কুশিক্ষা তাঁহাতে সন্দেহ নাই।” —টেকচাদ । ৩ । যাহার কাণ কাটা গিয়াছে : বোচা । ৪ । নিলজি ; বেহায়া । কাণকামড়ানি (ন, ম্) [ কাণ-কামড়ানি —কামড়ের স্তার যন্ত্রণাদায়ক অনুভূতি] বি, কর্ণরোগবিশেষ ; এই রোগে কাণের ভিতর কটুকটু করে ও অসহ্য যাতনা হয়। কাণকুয়া (ন) [ কর্ণকুপ—কান দ্রঃ বি, মৎস্তের মাপার দুইধারে অবস্থিত শক্ত আবরণনিম্নস্থ গৰ্ত্ত । ২ । উক্ত আবরণ ; মাছের ফুলকো : কান্কে । ৩। প্রিাদে) কর্ণমল । কাণকোটারি, রী ( কাকোটারি ) { কর্ণ কীট , ওড়ি—কাণকোটল ] বি, কীটবিশেষ ; ইহা কাণে প্রবেশ করিয়া পটহ কাটে ও অশেষ কষ্ট দেয় বলিয়৷ এই নাম । প্ৰ—“কাণকোটারিতে মোর কাণ কৈল কালা। কেটা মোরে বুড়ী বলে এত বড় জ্বালা ৷”— অন্নদামঙ্গল। "কোটি কোটি কাণকোটারির কিলিকিলি”-অ, ম । कां*ट्रछि, फ़ि (न्) { का१-dis-३ (रिनिटेॉtर्थ)-शांशंब diB कांt१ब्र भठ ] বি, দীর্ঘজঙ্ঘ জলচর পক্ষী, ইহাদের ঘাড় লম্বা ও সাপের মত । বর্ণ লাল, গোলাপী, ঠোটের গোড়া হরিদ্রাবর্ণ, আগা কাল ; slamingo. কাণপাতা (ন) { কর্ণপাত দ্রঃ। কাণ— পাতা ( শ্রবণার্থে শব্দাভিমুখে স্থাপন করা ) ] ক্রি, কর্ণপাত করা ; শুনা । প্র—“কাণ পাতা ভার" —টেকচাঁদ । কাণা (না) [ সং—কাণ । বাং— কাণ, কানা উভয় চলিত ; অধুনা "ন" অধিক প্রচলিত। তুল—স্বৰ্ণ হইতে সোণা, সোনা ] বিণ, একচক্ষু: হীন । কিন্তু বাঙ্গালায় দুই চক্ষু হীন অর্থেও ব্যবহৃত হয় । প্র--"কাশা অন্ধ" “কাণার হাতের লাঠি” —ছড়া । ২ । ভয়ে অন্ধপ্রায় ; দৃষ্টহীরা। প্র— সঞ্চানেতে দিল হানা, নিজ গৃহে যাইতে কাণা, তোমার আঁচলে কৈল স্থিতি।” –কবিক । ৩ । পাত্রাদির ধার ; কিনারা । 《"মেরেছ মেরেছ কলসীর কাণা, তাই বলে কি প্রেম দিব না।”-বাং-গান। কাণাকাণি ( কানাকানি ) [ কর্ণাকণি শব্দজ ] বি, কাণের কাছে কণা বলা : গোপনে পরামর্শ করণ ; কর্ণে গুপ্ত কথা বলা ; পরস্পর বলাবলি । - "প্রথম মাসের গর্ভ জানি বা না জানি দোয়জ মাসের বেলা লোকে কাণাকাণি" —কবিক । ৩। প্রায় পাত্র পরিপূর্ণ হওন ; ছাপাছাপি । প্র—“যমুনা হইল কাণাকণি।” কাণাঘুষা | কানাযুৰা দ্রঃ । কৰ্ণ হইতে কাণা ; ঘোষণা হইতে ঘুষ ] বি. কর্ণে কর্ণে ঘোষণা : গোপনে গোপনে এক কাণ হইতে অন্য কাণে সংবাদ চালনা ও আলোচনা ৷ প্র—“আমাকে একথা বলেন নাই, আমি কাণ৷ ঘুযায় কথাটা জানিতাম।”—অক্ষয় সরকার। কাণমেঘ (কানামে, ) [ কাণ যে আধারে দেখা যায় না, ঘন কৃষ্ণ । (পশ্চিমাঞ্চলে বলে কালামেলা) -মেঘ ] বি, ঘনকৃষ্ণ মেঘ। প্র— "আকাশে স্থানে স্থানে কাণ মেঘ আছে— রাস্ত ঘাট সেঁত সেত করিতেছে"—টেকচাপ । বি, হাড়ি কলসী প্রভৃতি পাত্রেব কানা বা কিনারা । কাণ্টি কোনটি দ্রঃ বি, কালমোড়। কাণ্টী, কাষ্ঠী (প্রাদে । কাণ দ্রঃ ] বিণ. কলহকারিণী । কাণ্ড (কানডো) [ কন (শোভা পাওয়া) +অ=আ (কর্তৃ—সংজ্ঞার্থে) যে শাখা দ্বার শোভিত হয় ] ৰি, পুং, রী, বৃক্ষের যে স্থান হইতে প্রথম শাখা নির্গত হয় ; গুড়ি। প্র— "গণ্ডকে বিন্ধিয়া কাণ্ডেখড়গবলে ছিণ্ডে ।” -कदिक । ২ । বৃন্ত ; বেঁটা । ৩ । পৰ্ব্ব ; পাব। ৪। গুচ্ছ ; ঝড়ি তৃণগুচ্ছ ৷ ৬ ৷ শরগাছ ; খাগড়া। ৭। ৰাণ ; কড়ি। ৮। প্রকরণ ; সামাজিক বিষয় ও নায়কনায়িকার প্রেম ঘটিত নাটক (স্বচ্ছকটিকাদি) । ৯ । গ্রন্থবিভাগ ; গ্রন্থের পরিচ্ছেদ বা অধ্যায়। প্র-বেদের কৰ্ম্মকাণ্ড : জ্ঞানকাও ৷ সাতকীও রামায়ণ । ১• I ব্যাপার : ঘটনা । প্র—প্ৰলয় কাও করে বসেছে। সে এক অদ্ভুত কাও ৷ ভয়ানক কাণ্ড । অকাণ্ডকাণ্ড-অকস্মাৎ ঘটনা ৷ ২ ৷ [প্রাদে] বিপরীত কাণ্ড ৷ কাণ্ডখানা ( থানা=থান=খণ্ড-নির্দেশ বা নির্ণয়ার্থক ) ব্যাপারখানা :বিষয়টা ; ঘটনাটা । কাণ্ডকারখানা [ কারখানা দ্রঃ । কাও ( ঘটনা )-কারখানা ( সহচর শব্দ কাণ্ডের বহুবচনে ) সংঘটন কাৰ্য্যের কাহিনী বা বৃত্তাও ] বি. বিষয় ব্যাপার : ঘটনাসমূহ ; সংঘটনকারীর আচরণ ব; কাৰ্য্যপ্রণালী । প্র—তাহার কাওকারখানা দেখিয়া তিনি অবাক হইয়া রহিলেন। লঙ্কাকাও— হনুমান লঙ্কার ঘরে ঘরে আগুন দিয়া স্বৰ্ণলঙ্কা ছারখার করায় লঙ্কাকাও বলিতে ( ১ ) অগ্নিকাও বুঝায়। ( ২ ) তাহ হইতে লঙ্কাকাণ্ডের স্থায় সৰ্ব্বনাশকর কাও ৷ ২ । কৃত্তিবাসী রামায়ণে লঙ্কাকাণ্ডে রাম রাবণের যুদ্ধ এবং তাহাতে সবংশে রাবণ-নিধন বৃত্তাপ্ত বর্ণিত হইয়াছে। তাহা হইতে "যুদ্ধ কাও” ( মূল রামায়ণের ) : কাটাকাটি মারামারি ব্যাপার। তুল—কুরক্ষেত্র ( গ্রা— কুলুক্ষেত্তর ) । কাণ্ডকার ( কাডোকার ) । কাও (বাণ) कांब (८ग क८५) क्ल-कब्र +७ कर्दू-त्र१. সংজ্ঞার্থে ] বিণ, বাণপ্রস্তুতকারী : বাণকারক ; যে শর নির্মাণ করে ৷ ২ ৷ বি, ক্লী, গুবাক বৃক্ষ ; সুপারিগাছ । কাগুগ্রহ ( কানডোগ্রোহে ) [ কাণ্ডের ( অধ্যায়ের, প্রকরণের ) গ্রহ (গ্রহণ-জ্ঞান ) ৬৩২ ] বি, পুং, উপস্থিত বিষয় জ্ঞান : বা ধৰ্ত্তমান অবস্থার উপলব্ধি ; কাণ্ডঞ্জান । কাণ্ডচারী (কানডোচারি ) (কাও-চৰু (গমন করা, আরোহণ করা )+ইন কর্তৃ –শিন= কাগুচারিন ১ম, ১ব ] বিণ, যাহারা বৃক্ষকাণ্ডে বিচরণ করে ; কাকাতুয়া, টিয়া প্রভৃতি পাখী। কাণ্ডজ্ঞান (কানডোগ্ৰগ্যান) { কাও (ঘটনা —অবস্থা ) জ্ঞান ( বোধ ) ] বি, অবস্থা ऊनि : (कान् वरद्धांश् किं कर्डरा ठांशं বোধ ; সময় বা অবস্থানুযায়ী কৰ্ত্তব্যাকৰ্ত্তব্য জ্ঞান ; হিতাহিত বোধ ; বিবেচনা ; বিচারবুদ্ধি। ২। [কাণ্ডের (অধ্যায়ের, প্রকরণের) জ্ঞান ( বোধ ) ৬তৎ ] প্রকরণ-জ্ঞান। ৩ ৷ [ কাও=বৃক্ষের স্থলভাগ ] স্থূল বা মোটামুটি জ্ঞান। কাণ্ডজ্ঞান-হীন, শুষ্ঠ, রহিত—হিতাহিত বোধরহিত ; গোয়ার ।