পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৪৫৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গোপাল উড়ে । অtড়খেমটা । একবার দেখ রে ও যাদুধন। বাজার হলো কি না মনের মতন ॥ আমি যেই তোর শক্ত মালী, এনেছি তাই ক’রে যতন ॥ ফিরে সার হাট-বাজারে, কত জিনিস আন্‌লেম ধারে, খাজা গজা জিবেগজ, তোমার তরে, চাদসই আবার চাদের মতন ॥ আড়খেমটা । মাসি, দেখবো কি আর বল। যা এনেছ সকলি ভাল । তুমি কি এনেছ মন্দ, কিসে সন্ধ কিসে সন্ধ করব বল ॥ ভুরো ছানা মিছরি চিনি, আমি ও সব কিবা চিনি, চিনি কেবল দুধে চিনি,— পাই যখনি, যেমন-তর দুধে জল। আড়খেমটা । হাট-বাজারের হিসাব করে নাও রে এসে সোণার ধাতু। আমি যেই তেঁই এনেছিরে, করে কত ভেক্টী ধাতু। টাকা দিয়েছিলে মেকি, মাসীর সঙ্গে কর ফঁাকি, ফঁাকে ফঁাকে ক’রে ফঁাকি, ফঁাকে ফেল্লাম কত সাধু যা চাবে চাদ তাই এনেছি, কিছু কি বাকি রেখেছি, হাটের দফা শেষ করেছি, এনেছি চাকৃভাঙ্গ মধু জাড়খেমটা । মাসি, ও কথা বলোনা। আমি পাই বড় মনে বেদনা। তোমায় কি অবিশ্বাস আছে, ওগো মালি, মনে তুমি তাও করেন। ©ቆፃ মাতৃসম তুমি মাস, কে আছে এমন হিতাশী, স্থান দিলে দেখে বিদেশী, প্রাণ দিলেতো শোধ যাবে না ৷ আড়ধেমট।। মাসি, কও দেখি আমাঙ্গে । সুধাই এখন তাই তোমারে। ভূপতি সেই প্রজার প্রতি, ওগো মাসি, হুক্ষ বিচার কেমন করে। রূপে গুণে বিদ্যা কেমন, করেছে সে যে পণাপণ, মেয়েতে কে পারে এমন, সাবাস সে জন, ওগো মাfস —সাবাস ৭ে জন, ধষ্ঠ ভারে। வம்ா আখেমট। সে কথা আর তুলবো মিছে। সেরূপের তুলনা দিতে তুলনার কি তুল্য আছে। মেনকা উৰ্ব্বণী আর তিলোত্তম, এরা সবে যাদু রূপে অনুপমা, কিন্তু তবু নহে সে রূপসী সম, নখচন্দ্রে চন্দ্র হার মেনেছে । গুণের কথা কিবা কব গুণমণি, কণ্ঠে বিরাজ করেন বাকৃদেবী আপনি, ত্যজে পদ্মাসন, তার জিহবায় আসন, ন জানি কি বিদ্যা বর পেয়েছে। um-ru-mo............... কাওয়ারী। ওগো মাসি, কেন তারি রূপ শুনলে । ঘৃতাহুতি দিয়ে যেন দ্বিগুণ আগুণ জ্বালালে। রূপের কথা শুনে কাণে, অস্থির হতেছি প্রাণে, ঠেঃ ঠেকি দেখি এখন হয় বুঝি প্রাণে ;– হয়, তায় কঁপিছে কায় মদনের বাণে,— কি করিব কোথায় বাব, কোথা গিয়ে জুড়াইৰ, কি দিয়ে আর নিম্ভাইব, পোড়া অনলে । আড়খেমট1। যাদুমণি, ধর্য্য ধর ধর ধর। ৰে হলে কি স্বর চলেমা কেন এমন কষ্ট ।