পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৭২২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৩৩০ - বাঙ্গালার গান।= &P रांत्रौद्र-क७ब्रांजौ। जहैब्रां नैजिउ मन एदेशू &दानेो, হোলনা লোহোলনা সই। তখন জানিমু সখি, কত ভালবাসি ॥ । (হায়) মরমে মরমে লুকান রহিল, বলা হ’লন, سسسسسب ৰলি বলি বলি আরে কত মনে করিনু হ’লন লো টোড়ি—বীপতাল । 4. হ’লনা সই। কাছে তার যাই যদি, কত যেন পায় নিধি, ” না কিছু কহিল, চাহিয়া রহিল, তবু হরষের হাসি ফুটে ফুটে ফুটে না। গেল সে চলিয়া, আর সে ফিরিল না, কখন বা মৃদু হেসে, আদর করিতে এসে, ফিরাব ফিরাব বলে কত মনে করিমু সহসা সরমে বাধে মন উঠে উঠে না। হ’লনা লো হ’লন সই ॥ রোষের ছলনা করি, দূরে ধাই, চাই ফিরি, ம் கற চরণ বারণ তরে উঠে উঠে উঠে না। মিশ্র-ঝিঝিট-কাওয়ালী। কাতর নিশ্বাস ফেলি, আকুল নয়ন মেলি, । সখাহে, কি দিয়ে আমি তুষিব তোমায় ? চাহি থাকে, লাজ-বধ তবু টুটে টুটে না। জর জর হৃদয় আমার মৰ্ম্ম বেদনায় ॥ যখন ঘুমায়ে থাকি, মুখ পানে মেলি আঁধি, দিবানিশি আশ্র ঝরিছে সেথায় । চাহি থাকেদেখি দেখি সাধ যেন মিটে না, তোমার মুখে মুখের হাসি আমি ভালবাসি, সহসা উঠিলে জাগি, তখন কিসের লাগি, অভাগিনীর কাছে পাছে সে হাসি লুকায় ॥ সরমেতে মরে গিয়ে কথা যেন ফুটে না। Mijās samnitzak লাজময়ি, তোর চেয়ে, দেখিনি লাজুক মেয়ে, বেহাগ-কাওয়ালী। প্রেম-বরিষার স্রোতে লাজ তবু টুটে না। মনে রয়ে গেল মনের কথা । யூதகம் শুধু চোখের জল প্রণের ব্যথা ॥ খট-একতালা । মনে করি দুটি কথা বলে যাই, বলিগে সজনি, কেন মুখের পানে চেয়ে চলে যাই, যেওনা যেওন, তার কাছে আর শেওনা যেওনা। সে शलिं চাহে মরি যে তাহে, মুখে সে রয়েছে মুখে সে থাকুক, কেন মুদে আসে আঁখির পাতা। মোর কথা তারে বোলন বোলন ॥ স্নান মুখে সখি সে যে চলে যায়, আমারে যখন ভাল সেনা বাসে, ও তারে ফিরায়ে ডেকে নিয়ে আয়, পায়ে ধরিলেও বাসিবে না সে, বুঝিল না সে যে কেঁদে গেল, কাজ কি, কাজ কি, কাজ কি সজনি, ধূলায় লুটাইল হৃদয়-লত ॥ , মাের আর ভরে দিওনা বেনা। ভৈ4বী—কাওয়ালী। জয়জয়ন্তী—একতাল।। কত দিন এক সাথে ছিনু ঘুমঘোরে। তোমারি ভরে মা সঁপিচু দেহ, তবু জানিতাম নাকে ভাল বাসি তোরে । তোমারি তরে মা সঁপিলু প্ৰাণ, মনে আছে ছেলে-বেলা কত যে খেলেছি খেলা, | তোমারি শোকে এ আঁধি বরযিবে, কুহুম তুলেছি কত দুইটী আঁচল ভোরে। এ বীণ! তোমারি গাইবে গান। ছিছু মুখে যত দিন, দুজনে বিরহ হীন, যদিও এ বাছ অক্ষম, তখন কি জানতাম ভালবাসি তোরে। দুৰ্ব্বল তোমারি কার্য সাধিৰে, গ্রশেষে এ কপাল ভাঙ্গিল যখন, যদিও এ আসি কলঙ্কে মলিন, লেবেলকথিত হুয়াল স্বপন, তোমারি পাশ নশিৰে :