পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৭৭৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সৰসন্নয়ন্স কম্প । - -, - , রূপের মেঘে রূপের চমূক্ষ, রূপ-সয়সে রূপের ঠমক, গ্রহ তার চত্র হুধ, রূপে ডুবে আছে সবাই ॥ ডালে ডালে পাখীর মেলা, খেলছে রূপের মোহন খেলা, গাছে রূপের মধুর গীতি, নাচছে রূপের করে বড়াই ॥ পাতায় পাতার রূপ ফলেছে, ঐ দেখ বনমর ওই রূপ জ্বলেছে, রূপের মালা গেঁথে ঠাকুর, র্থে 'জে কোথায় আছে রাই ॥ আয় রে হেথা রূপ-পিয়ালী, দেখৰি ৰূপ রাশি রাশি, মেগে রূপ নিয়ে চল রে,কত নিবি নিয়ে চল রে, দেশে দেশে রূপ বিলাই। উ কি মেরে দেখসে শোভা দারু কাননে। রূপের ডালি খুলে বসে কি করছে আপন মনে রূপে কানন ছেয়ে গেছে, পাতায় পাতায় রূপ লেগেছে, রূপের ধ্যানে ডুবে আছে, বুঝি, ছড়াবে রূপ ত্রিভুবনে ॥ থেমে গেছে কলরব, পশু পক্ষী নীরব, এক ষ্টে চেয়ে সবরূপ দেখে ওই বদনে (কত)। চুপি চুপি আরে হেথ খবরদার কনে কথা, কইলে কথা পালাবে সে,আর না দেখৰি নয়নে ॥ আজ যেমন ধ্যানে বসা, বাঃ তামাসা, কি দেখিলাম হায়, প্রাণ আমার কোথায় গেল, কি হইল, আমি কব কায়, ময়ে যেন পড়েছিল, কে ইসারায় কি কহিল, অমনি ছুটে প্রাণটি আমার, পিছু পিছু ধায়। যেতে যেতে কোথা গেল, স্বষ্টি কোথা নড়ে র’ল, কেহ আর খুঁজে তাহার, সন্ধান নাপায়। অবশেষে যখন এল, আর কি সে তা চেনা গেল, অপরূপ কি যে শোভা, সৰ্ব্ব অঙ্গে ভার। छछू ठेां९७ीब्र पृ05 c¢हैं, কি ৰে শক্তি কে দিয়েছে, cषषिdनैदिक़? एक, गॅर्क श्रृंटिंक्षा। चळउन छठन दण, अनि चनक्विनव इदेण, যেখানে বা সবার সনে, কেমন যে মিশায়। . ভোজে কোথা গেল, সাইর সঙ্গে সব হইল, সবাইর তত্ত্ব, করে আপন, সুখে মরে বান্ধ। বল দেখি হল কেমন, সদাই থাকে প্রাণটি এমন, তার লাগি করে ধরি, কি করি উপায় ? আমি তোর মুখ ফুলেনে, ভগবানের ধার ধারনে ভাই, আমার ঠাকুর হাসিখুলী খেলায় ধূলোয় পাগল দেখতে পাই । যেমন হাসি উইল ফুটে, চৌদভুৱন এল ছুটে ; স্বষ্টি হল, সাড়া পল, সবাই ধরলে তাই। তাই তাই তাই চল্পো ভেসে, ঠাকুর খুন হেসে হেলে, হাসির তরঙ্গ কত, বলিহারি বাই। প্রেমে স্থষ্টি গর গর, কাপে ভাবে থর থর, তাল ধলে ঠাকুর আমার, নচিল সবাই । • ( আবার) যাই ফুরুল বাইরের খেলা, ভেঙ্গে গেল মহা মেলা, ঐ হাদিতে ডুবে গেল সাড়া শব্ব মাই। এ মজা ভাই দেখে দেখে, আমিও ভাই থেকে থেকে সবাইর সঙ্গে মিলে মিশে, হালি নাচি গাই। যখন আসবে সময় যাবে বেলা, ফুরাবে এই ভবের খেলা, ডুবে যব হাসির মৰে, ধিন্‌ ধিন্‌ ধিন্‌ তাই আই যারা মুখ ফুলিয়ে থাকে ভবে, তাদের বহুত দেরী হবে, সবায়ের সঙ্গে নাচ গাওয়া ভিন্ন পন্থা নাই। रङ्गणै भल्लांब्र-जांझी। কি ভেবে মা এসেছিস্ আজ এই পুস্ত ঘরে। কে আর তোরে তেমনি করে বসাবে জাদয়ে ॥ আজ আর কি সেদিন আছে, ভারতলক্ষ্মী চলে গেছে, লক্ষ্মীছাড়া কণ্ডগুলি ম’রে জাছি পড়ে। তখন মাগো দশভূজা, যে ভাবে তোর হও পুজ। স্মরি আজি গৈ সব কথা সজা আঁৰি করে;