পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৮৭৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ጳኳ» 8 দুর্মুদ্ধি অদ্যপি এমন প্রবল, সুধাতুল্য বোধ পাপের গরল, এ রোগযন্ত্রণ, প্রভে তুমি বিন, বল আর কে হরিবে ? ভস্মরাশি হয়ে রহিয়াছে চিত, তাই ভয়ে আমি সদা আছি ভীত, জানি না হে কবে, কৃপা তব হবে কবে এ দুঃখ ঘুচিবে ॥ বিগলিত হবে এ পাষাণ প্রাণ, শত্ৰু মিত্র সব হইবে সমান, দ্বেষ অভিমান আত্মপর-জ্ঞান, কিছুমায় না রহিবে। ভ'সিব হে প্রভো, প্রেমেতে তোমার, মুখে প্রেম তব গাব অনিবার, অবিরল স্রোতে, আঁখিযুগ হতে, 攀 প্রেম-ধারা নির্বারিবে ॥ * মনোহর-সাই—লোঙা । যায়ু যকৃ প্ৰাণ, চিন্তা কি তয়, * যদি তোমার ইচ্ছ। হয় । প্রভো ইহ লোকে, পর লোকে, তুমিই আশ্ৰয় ॥ পাপে তাপে প্রাণ-বল, করিয়াছি ক্ষয় । (এখন) জীবনই মরণ আমার, মরণে কি ভয় ॥ শুনেছি কেহই ভবে, তোমার ত্যজ্য নয় । সেই আশাস্বত্র ধরে আমি, আছি দয়াময় ॥ অব্যর্থ তোমার বাক্য, নাহিক সংশয় । হবে অস্তে, পদপ্রাস্তে লীন, এ পাপ-হৃদয় ॥ * বাহার—একতাল।। গাওরে আনন্দে আজ, ভব-বিপাক-ভঞ্জনে । ঢালি দেও প্রাণ মন, র্তার নাম-কীৰ্ত্তনে ॥ নিখিল ভুবন লেখন যার, যার প্রেম-চিস্তনে, অমিয়ার ধার উথলে আপনি, হৃদয়-পদ্মাসনে। গাও আজ র্তার গীত, চিত-পিয়াস-পুরণে, জগত মতাও ঘোষি, জগত-জীব জীবনে ॥ . মধুর মুরুতি ভাতিছে যার, গগনে মৃগলানে, স্থতির লহরী বিপিনমাঝে, বিহগকণ্ঠ-নিঃস্বনে । সৃদয় ভরিয়ে ডাক রে সেই, ভকত-হৃদয়-রঞ্জনে, না করে সন্তাপ পাপ নিরবি আঁখি অঙ্গন। • | বাঙ্গালীর গান •fqaş-w!ğ1 ! চিরদিন কাহারও হে, সমান না যায় । আজি স্বর্ণসিংহাসনে, কালিকে ধরায় ॥ আজি আনন্দ-হিল্লোল, কালি অশ্রু অবিরল, সকলেরই এই ভাব, ভবের লীলায় ॥ প্রভাতে কুসুম-দল, যেন যুখে ঢল ঢল, সন্ধা ন হইতে দেখ, দলিত ধূলায় । তেমতি জীব-জীবন, বাইতেছে অনুক্ষণ, এই হাসি এই কান্না, হায় হায় হায় ॥ আরে মায়ামুগ্ধ মন, এখনও মেল নয়ন, ভাসিবে রে কত আর, জোয়ার ভাটায় । স্থির শান্তি যদি চাও, তায় প্রাণ সঁপে দা ? শাশ্বত কল্যাণ সুখ, যাহার কুপায় i இ கக ঝিfঝট থাম্বাজ – একতালা । কোথা হে করুণাসিন্ধু, ড কে দুঃখী তোমারে। দাড়াবার স্থল আর, বল কোথা সংসারে । খোল হে কুপার দ্বার, চাও ফিরে একবার, লও হে পদ-তলে তুলে,রোধ না আর আঁধারে। শিশুর ক্ৰন্দন শুনি, দূরে না রহে জননী, অমনি ক্রোড় প্রসারি, অশ্রুবারি নিবারে ॥ আশ্রয়-পাদপ ছেড়ে, লতা কি লাচিতে পারে, পাচে কি চাতক নাথ, নীর-ধারা না হেরে । ওহে শাস্তির নিধান, বাচাও আমার প্রাণ, হৃদয়ের রন্ধে রন্ধে, প্রেমনুধা সঞ্চারে ॥ அக்கடி பங்கம் মনোহর-সাহিী -লোভ1 । ९ थ१ पाइ,-युम्न-पाङ्ग-पाङ्ग, দুখ-দাহনে প্রাণ বার। যে আগুনে জ্বলি আমি, তাহা কহিব কাহায় ॥ হ’ল জর্জরিত মৰ্ম্মগ্রন্থি শ্বের বিষের জ্বালায় । আমি ধূলিময় হেরি চক্ষে, আর না দেখি উপায়। বাক্য না নিঃসরে আর এই পাপ-রসমায়। এ সময়ে দীন-বন্ধু, তুম রহিলে কোথায় । আমি রেখেছি এ দগ্ধ প্রাণ, কেবল তোমার আশায় । প্রভো চরণ-অমৃত-দানে, নিস্তার আমায় । * απuφωmünthημία