পাতা:বাসন্তিকা - মনীন্দ্রনাথ সিংহ.pdf/১৩

উইকিসংকলন থেকে
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।


দ্বিতীয় দৃশ্য

[দৃশ্য-পরিচয়—কুঞ্জবনের এক পার্শ্ব—রাত্রি সবে প্রভাত হোয়েছে—চারিদিকে অন্বেষণ করিতে করিতে বকুলরাণীর প্রবেশ]

( গান )

কোথায় ওগো লুকিয়ে আছো ফুলপিয়াসী দখিন্‌ হাওয়া
ভোর-নিশীথে স্বপনঘোরে শুনেছি যে তোমার চাওয়া।
অভিসারের তিয়াস ঢেলে,
রক্ত-আগুন বুকে জ্বেলে,
ধরার মাঝে ফুট্‌লো বকুল প্রেমসায়রে নাওয়া।
তোমার মাঝে হারিয়ে যাবার আজ্‌কে দাবীদাওয়া।

[গান গাহিতে গাহিতে দখিন্‌ হাওয়ার প্রবেশ]

( গান )

তন্দ্রালস আঁখি আমার উঠ্‌লো জেগে কাহার ডাকে,
রূপকুমারী ডাক্‌ছে বুঝি কুঞ্জবনের ফাঁকে ফাঁকে।
তরুণ রবির অরুণ আলোর উথ্‌লে ওঠে কাহার হাসি,
কইছে আমার মনের দ্বারে, কোন্‌ পিয়ারী ভালোবাসি।
লজ্জানত অাঁখির কোণে অভিমানের অশ্রু জাগে,
অভিসারের যায় যে বেলা, কয় সে আপন মনের ফাঁকে।