পাতা:বিক্রমশিলা.djvu/৪৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

2its আজ অনেক কষ্টে তিববতী লামা আচাৰ্য্য দীপঙ্করের সাক্ষাৎ CPCCR এর আগে দু একদিন ভিক্ষুসংঘে আচাৰ্য্যকে দেখেছিলেন বটে, কিন্তু তার সঙ্গে আলাপ করবার সুবিধা পান নি। আজ আচাৰ্য্যর ঘরে তঁর ডাক পড়েছে, তাই তিববতী লামা যে বাৰ্ত্তা নিয়ে সুদূর ভোট দেশ থেকে এসেছেন, সেই বাৰ্ত্তা, সেই নিমন্ত্রণ আচাৰ্য্যকে দিতে এসেছেন । আচাৰ্য্যকে প্ৰণাম করে লামা বল্লেন-“ভোট দেশের রাজা ও জন সাধারণের পক্ষ থেকে আমি আপনাকে অভিবাদন জানাচিছ।” আচাৰ্য্য তঁর অভিবাদন স্বীকার করে বল্লেন-“ভোট দেশে সদ্ধৰ্ম্মের অবস্থা কেমন ?” তিনি বল্লেন-“যখন প্রথম ভোট দেশে ভগবান বুদ্ধের ধৰ্ম্ম প্ৰবেশ করে, তখন নতুন ভিক্ষুদের মধ্যে একটা উৎসাহ ছিল, একটা কাৰ্য তৎপরতা ছিল। তঁরা বৌদ্ধধৰ্ম্মে দৃঢ় আস্থা স্থাপন করে, ভোটদেশের প্রান্তে প্ৰান্তে সন্ধৰ্ম্ম প্রচার করেছিলেন। কিন্তু এখন ভিক্ষুসংঘে কেমন একটা জড়তা এসেছে, তাদের যেন সে উৎসাহ নেই, সদ্ধৰ্ম্মে সে আস্থা নেই। মাঝে মাঝে ভারতীয় পণ্ডিতরা গিয়ে তাদের জড়তা ভেঙে দিতেন, আর নতুন উৎসাহে উৎসাহিত করেন। এখন সন্ধৰ্ম্ম এমন অবস্থায় এসে পড়েছে-যে ভারত থেকে কোন অনুপ্রেরণা না